গ্রাম এবং শহর মিলিয়ে বিটিভিরই দর্শকই বেশি : তথ্যমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ২১:১৫

রাষ্ট্রীয় প্রচার মাধ্যম বাংলাদেশ টেলিভিশনের মান নিয়ে সংসদে প্রশ্ন উঠলেও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, এখনও দর্শক সংখ্যা (ভিউয়ার) বাংলাদেশ টেলিভিশনেরই বেশী। সেটি গ্রাম এবং শহর মিলিয়ে বিটিভিরই দর্শক সংখ্যা বেশি।

বুধবার রাতে একাদশ জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হলে প্রশ্নোত্তর পর্বে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমানের সম্পুরক প্রশ্নের জবাবে এ দাবী করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ টেলিভিশনের অনুষ্ঠানের মান এবং খবর পাঠের মনোন্নয়নের জন্য ইতোমধ্যে অনেকগুলো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। বিটিভির অনুষ্ঠানের মান ঠিক রাখার ক্ষেত্রে বড় প্রতিবন্ধকতা ফরমায়েশী অনুষ্ঠান। বিভিন্ন জন ফরমায়েশী অনুষ্ঠান করার জন্য নানা দেন দরবার তদবির করে থাকেন। আমি দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে ফরমায়েশী অনুষ্ঠান করা, সেটি বন্ধ রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, বিটিভি’র অনুষ্ঠানের মান উন্নয়নের জন্য আরো অনেক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। কিছুদিন পরেই দেখতে পাবেন বিটিভির অনুষ্ঠান ও খবরের মান অনেক উন্নত হয়েছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সুনির্দিষ্ট আইন থাকা সত্ত্বেও বিদেশী টেলিভিশন চ্যানেলে বাংলাদেশের বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে। এতে দেশের প্রায় এক হাজার কোটি টাকা দেশ থেকে চলে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে দেশ ক্ষতি হচ্ছে, দেশের অর্থ পাচার হচ্ছে। দেশের স্বার্থে আইনের কঠোর বাস্তবায়ন করতে সরকার বদ্ধপরিকর। বিদেশী টেলিভিশন চ্যানেলে বাংলাদেশের বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবে না।

সরকার দলীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের সম্পুরক প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ঢাকায় ৩১ তলা বিশিষ্ট জাতীয় প্রেসক্লাব কমপ্লেক্সের ইতোমধ্যে ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। চট্টগ্রামে ১০ তলা বিশিষ্ট প্রেসক্লাব ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। বিভিন্ন জেলায় প্রেসক্লাব নির্মাণের ক্ষেত্রে সরকারের থেকে সহায়তা করা হয়েছে। তবে কোন জেলায় যখন প্রেসক্লাব নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়, সরকারের কাছে সহায়তা চাইলে সহায়তা করা হয়।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ