সম্প্রচার নীতিমালা পাস হলেই অনলাইন মিডিয়ার নিবন্ধন: তথ্যমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:০৫

সম্প্রচার নীতিমালা পাস হলেই অনলাইন মিডিয়াগুলোর নিবন্ধন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ইতিমধ্যে অনেক অনলাইনের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান তিনি। আজ রবিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু হলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী এ কথা জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ বলেন, বর্তমানে অনলাইন মিডিয়া পৃথিবীর বাস্তবতা। অনলাইনের প্রয়োজন আছে। দেশের অনেক অনলাইন সমাজ ও রাষ্ট্রের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে সংবাদ পরিবেশন করছে।
তিনি বলেন, কিছু অনলাইনের এ দায়বদ্ধতা নেই। সম্প্রচার নীতিমালা পাস হলে অনলাইনগুলো নিবন্ধন করা হবে। ইতিমধ্যে অনেক অনলাইনের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব দেবেন কখনও ভাবিনি। কলেজ জীবনে আমি অনেক মাইকিং করেছি। দলের পক্ষে অনেক প্রেস রিলিজ লিখেছি। প্রধানমন্ত্রী দলের ও রাষ্ট্রের মাইক আমার হাতে ধরিয়ে দিয়েছেন। ছয় বছর দলের পক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে ওঠাবসা আমার।

দায়িত্ব নেয়ার শুরু থেকে সাংবাদিকদের অমীমাংসিত বিষয়গুলোর সমাধান করার চেষ্টা করছি বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন করা হবে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মূলত পত্রিকার জন্য ওয়েজবোর্ড ছিল। টেলিভিশনের পাশাপাশি দেশে অনেক এফএম রেডিও আছে। দুই-একটির শ্রোতার সংখ্যা অনেক টেলিভিশনের দর্শকের চেয়ে বেশি। তাদেরও সম্প্রচার নীতিমালার আওতায় আনা হবে।
গণমাধ্যমের স্বাধীনতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রতিটি মানুষ গণমাধ্যমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট। একটি শিশু যে কার্টুন দেখে সেটিও গণমাধ্যম। সত্য সংবাদ মন্ত্রীর বিরুদ্ধে হলেও পরিবেশিত হবে। দেশের বড় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে হলেও হবে। তবে বীভৎস দৃশ্য টেলিভিশনে পরিবেশিত হলে সমাজে কী প্রভাব ফেলবে সেটিও বিবেচনায় নিতে হবে।

সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের তহবিল বাড়ানোর কথা জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে এ তহবিল থেকে সাংবাদিকদের অসুস্থতার পাশাপাশি সন্তানদের পড়াশোনা, পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসার খরচ দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হবে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food