শুধু সঙ্গী নন, যৌনতায় বড় ভূমিকা পরিবেশেরও

  সংবাদ প্রতিদিন

২৪ নভেম্বর ২০২০, ১২:১৬ | অনলাইন সংস্করণ

ধরুন মনের মানুষের একেবারে পাশে রয়েছেন। এমন সময় কার না তাঁর কাছে আসতে ইচ্ছা করে বলুন তো? আর কাছে আসা মানেই একটু স্পর্শ আর তারপর যৌনতা না হলে প্রেম জমবে কী করে? ভালবাসা কীভাবে হবে আরও গভীর? তাই তো সহজাত প্রবৃত্তি অনুযায়ীই দু’জন মনের মানুষ জড়িয়ে পড়েন শারীরিক সম্পর্কে। সুযোগ পেলেই তাঁরা মেতে ওঠেন উদ্দাম যৌনতায়। কয়েক মিনিটের ভালবাসাবাসিই যেন অক্সিজেন জোগায় দু’জনকে। দূর করে দেয় সমস্ত ক্লান্তি।

তবে এ তো নয় গেল সুস্থ যৌনতার কথা। কিন্তু প্রতিবারই মিলনে কী আপনাকে একইরকম আনন্দ দিতে পারেন মনের মানুষ। বেশিরভাগ মানুষই উত্তরে বলবেন না। আর মনে মনে না জানি কতবার প্রেমিক অথবা প্রেমিকাকে নিয়ে আক্ষেপ করেছেন। আক্ষেপ না করে কী কারণে প্রতিবার একইরকম সুখ পাওয়া সম্ভব হয় না, তা বরং খতিয়ে দেখুন। জানেন, কোথায় যৌনতায় মেতে উঠছেন, সেই স্থান নির্বাচনের উপরেও যৌনসুখ কতটা পাবেন তা নির্ভর করে। একথার কোনও কারণ খুঁজে পাচ্ছেন না তো? তাহলে চলুন এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

সাধারণত বেশিরভাগ যুগলই বাড়িতে যৌনতায় মেতে ওঠেন। বাড়িতে পরিজনরা রয়েছেন বাকি আপনি মনের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আছেন, তা সবার প্রথম ভাবতে হবে। পরিজনদের সঙ্গে থাকলে স্বাভাবিকভাবেই যৌনতা নিয়ে একটু বেশিই ভাবনাচিন্তা করেন সকলে। কারণ, এখনও আমাদের দেশে যৌনতা নিয়ে যথেষ্ট লুকোচুরি রয়েছে। তাই সেক্ষেত্রে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রতিক্রিয়া শেষ করার চেষ্টা করেন অনেকেই। তবে বাড়িতে শুধুমাত্র মনের মানুষের সঙ্গে থাকলে তাঁদের কাছে যৌনতার সংজ্ঞা একেবারে অন্যরকম। তাঁদের ক্ষেত্রে ভালবাসায় কোনও বাধানিষেধ নেই। এমন পরিবেশে যে মনের মানুষের শরীরের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গ আপনার ছুঁয়ে দেখতে ইচ্ছা করবে সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

বাড়ি থেকে দূরে কোথাও গিয়ে যৌনতায় মেতে ওঠার মজা আবার একেবারে অন্যরকম। কারণ, সেখানেও আপনার  মনের মানুষকে একেবারে আলাদাভাবে পান। তাই ধীরে সুস্থে অনেক বেশি সময় নিয়ে দু’জনই দু’জনের শরীর নিয়ে খেলা করার সময় পান। যাঁরা একটু পরীক্ষা নিরীক্ষা করতে ভালবাসেন তাঁরা বিভিন্ন ভঙ্গিমায় শারীরিক সম্পর্কে মেতে ওঠেন। আর তার ফলেই যৌনতার চরম সুখ উপভোগও করতে পারেন।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ