রিজেন্টকাণ্ডে স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজিকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ আগস্ট ২০২০, ১১:৩৭

রিজেন্ট হাসপাতালের দুর্নীতি ও করোনা সনদ দেওয়ার নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট)  সকাল ১০টা থেকে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে অনুসন্ধান দলের প্রধান শেখ মো. ফানাফিল্যার নেতৃত্বে একটি টিম তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন।

সংস্থাটির পরিচালক (জনসংযোগ কর্মকর্তা) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন।

একই অভিযোগে ১২ আগস্ট স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক পরিচালক ডা. মো. আমিনুল হাসান, উপপরিচালক মো. ইউনুস আলী, ডা. মো. শফিউর রহমান ও গবেষণা কর্মকর্তা ডা. মো. দিদারুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক।

নিম্নমানের মাস্ক, পিপিই ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সরঞ্জাম কেনায় অনিয়মের অভিযোগে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদকে বুধবার (১২ আগস্ট) প্রথমদিনের মতো জিজ্ঞাসাবাদ করে দুর্নীতি দমন কমিশন। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুদকের পরিচালক মীর জয়নুল আবেদীন শিবলীর নেতৃত্বে অনুসন্ধানকারী দলের সদস্যরা।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘সিএমএসডি কর্তৃক কোভিড সংশ্লিষ্ট ক্রয় বিষয়ে অভিযোগ উঠায় দুদক তদন্ত করছে। সাবেক মহাপরিচালক হিসেবে আমি কী জানি তা শুনার জন্য দুদকের কর্মকর্তারা আমাকে অনুরোধ করেছিলেন। আমি যা জানি তা বিস্তারিত বলেছি।’

নিজেকে ‘নিষ্ঠাবান, দক্ষ ও সফল’ দাবি করে তিনি বলেন, ‘আমি একজন কঠোর পরিশ্রমী, নিষ্ঠাবাদ, সৎ, দক্ষ, সফল ও মেধাবী কর্মকর্তা হিসেবে সারাজীবন কাজ করেছি। কেউ অপরাধ করলে কঠোর শাস্তি হোক তা আমি চাই। এ বিষয়ে তদন্তে আমি সব ধরনের সহযোগিতা করব।’

তবে বুধবার সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্নের উত্তর দেননি তিনি।

গত ২১ জুলাই স্বাস্থ্য খাতের অব্যবস্থাপনা আর অনিয়মের সমালোচনার মধ্যে পদত্যাগ করেন আবুল কালাম আজাদ। এর পর গত ৬ আগস্ট মাস্ক-পিপিইসহ করোনা স্বাস্থ্য সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি এবং রিজেন্ট হাসপাতালের অনিয়ম অনুসন্ধানে তার বক্তব্য নেওয়ার জন্য ১২ ও ১৩ আগস্ট তাকে দুদকে হাজির হতে বলা হয়।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ