মিরপুরে দীপু হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন

  ইউএনবি

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:৩২ | অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর মিরপুরে ব্যবসায়িক দ্বন্দ্ব ও সন্ত্রাসী কার্যক্রমে বাধা দেয়ার কারণে ১৯৯৬ সালে খুন হওয়া কামাল পাশা ওরফে দীপু (২৩) হত্যা মামলায় নয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মনির কামাল এ রায় ঘোষণা করেন।

যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মো.নাছিম, আব্দুল মালেক, জয়নাল আবেদীন, ইকবাল হোসেন, জোহরা হক, ইয়াছিন, আবুল হাসেম, দুলাল ড্রাইভার ও মো.সেলিম।

কারাদণ্ডের পাশাপাশি প্রত্যেক আসামিকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর মাহবুবুর রহমান জানান, রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নাছিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর আট আসামি পলাতক থাকায় তাদের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা ইস্যু করা হয়েছে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, মামলার ভুক্তভোগী দেওয়ান কামাল পাশা ওরফে দীপুর সাথে আসামিদের ডিস ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। এছাড়াও দেওয়ান কামাল মিরপুরের সন্ত্রাসবিরোধী সংগঠনের সদস্য ছিলেন। আসামিরা এলাকায় চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য সৃষ্টি করায় মামলার ভুক্তভোগী তাদেরকে এলাকা থেকে বিতাড়িত করেন। আসামিরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেওয়ান কামালকে ১৯৯৬ সালের ১৩ জানুয়ারি মিরপুরের মাজার রোডে চাকু মেরে হত্যা করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাবেক হিসাবরক্ষক দেওয়ান আব্দুর রহমান বাদী হয়ে মিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক মোহাম্মদ নাছিরউদ্দিন ২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। ২০০৫ সালের ১৫ মে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৩। মামলায় ১৫ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে নয়জন আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করেন।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ