দুর্নীতির অভিযোগ : হাইকোর্টের ৩ বিচারপতিকে সাময়িক অব্যাহতি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ আগস্ট ২০১৯, ১২:০০ | আপডেট : ২২ আগস্ট ২০১৯, ১৩:২৬

হাইকোর্টের তিন বিচারপতির নাম নিয়মিত কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় আপাতত তাদের দায়িত্ব পালন থেকে বিরত রাখা হয়েছে।  

এই তিন বিচারপতি  হলেন- বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি একেএম জহুরুল হক।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে সুপ্রিম কোর্টের কার্যতালিকায় দেখা যায়, এই তিন বিচারপতির নাম নেই। এর পরই এর কারণ জানার জন্য গণমাধ্যমকর্মীরা রেজিস্ট্রার জেনারেল কার্যালয়ে যোগাযোগ করেন।

জানা যায়, প্রাতিষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়ে কোনো নোটিশ জারি করা হয়নি। তবে রেজিস্ট্রার জেনারেলের কার্যালয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘হাইকোর্টের তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে তদন্তের বিষয়টি শুনেছি। তবে এটা প্রধান বিচারপতি ও রাষ্ট্রপতির বিষয়। তাই আপাতত এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না।’ 

প্রসঙ্গত, গত ১৬ মে নিয়ম বহির্ভূতভাবে নিম্ন আদালতের মামলায় হস্তক্ষেপ করে ডিক্রি পাল্টে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল হাইকোর্টের বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি একেএম জহুরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চের বিরুদ্ধে।

ন্যাশনাল ব্যাংকের ঋণ সংক্রান্ত এক রিট মামলায় অবৈধ হস্তক্ষেপ করে ডিক্রি জারির মাধ্যমে হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ রায় পাল্টে দেন বলে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে অভিযোগ তুলেছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এরই ধারাবাহিকতায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চ সংশ্লিষ্ট অর্থ ঋণ আদালতের (নিম্ন আদালত) মামলাটির সব ডিক্রি ও আদেশ বাতিল ঘোষণা করেছিলেন।

তবে এ অভিযোগে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহুরুল হককে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে কিনা, সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। একইভাবে বিচারপতি কাজী রেজাউল হকের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের বিষয়েও মন্তব্য করা থেকে বিরত রয়েছেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ