চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা সোহেল হত্যা মামলার আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১১:১৮ | আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১২:২০

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা মামলার আসামি জাবেদ পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। 

সোমবার (২২ এপ্রিল) রাত ১২টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানার জাম্বুরি মাঠের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জাবেদ মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। এ মামলায় গ্রেফতার আসামিরা জবানবন্দিতে জানিয়েছেন মহিউদ্দিন সোহেলকে জাবেদই ছুরিকাঘাত করেছিল।

নগর পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ডবলমুরিং জোন) আশিকুর রহমান বলেন, একদল লোক ডাকাতির উদ্দেশ্যে জাম্বুরি মাঠে জড়ো হয়েছে খবর পেয়ে ডবলমুরিং থানা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়। সেখানে পৌঁছানোর পর তারা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলি করে, পুলিশও তখন পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ পর গোলাগুলি থামলে সেখানে জাবেদকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। জাবেদকে সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি চায়নিজ পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন, দুটি এলজি, ১৩ রাউন্ড গুলি ও ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ডবলমুরিং থানার ওসি সদীপ কুমার দাশ গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তাকে পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গত ৭ জানুয়ারি নগরীর ডবলমুরিং থানার পাহাড়তলী বাজারে ‘গণপিটুনি’তে নিহত হন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেল। তবে পরিবারের সদস্যরা দাবি করেন, গণপিটুনির অজুহাত দিয়ে মহিউদ্দিন সোহেলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৮ জানুয়ারি দিবাগত রাতে মহিউদ্দিন সোহেলের ছোট ভাই মো. শাকিরুল ইসলাম শিশির স্থানীয় কাউন্সিলর সাবের আহমেদকে প্রধান আসামিসহ ২৭ জনের নামে ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের করেন। অজ্ঞাত আসামি করা হয় আরও ১০০-১৫০ জনকে।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ