শাহজালালে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ১

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ মার্চ ২০১৯, ২০:৫১ | আপডেট : ২২ মার্চ ২০১৯, ২২:০১

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পিস্তল ও গুলি নিয়ে প্রবেশ করায় এক ব্যক্তিকে আটক করেছে এভিয়েশন সিকিউরিটি ফোর্স (এভসেক)। আটক ব্যক্তির নাম এসএম মুজিবুর রহমান। সন্ধ্যা ৬টার দিকে এসএম মুজিবুর রহমানকে আটক করা হয়।

এভিয়েশন সিকিউরিটি ফোর্স এর অপারেশন ডিরেক্টর নূরে আলম সিদ্দিকী বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, আটক ব্যক্তি নিজেকে সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদকের পরিচয় দিয়েছেন। নভোএয়ারের ভিকিউ ৯৪৭ ফ্লাইটে মুজিবুর রহমানের ঢাকা থেকে যশোরে যাওয়ার কথা ছিল। প্রথম স্ক্যানিং গেটেই তার ব্যাগে আর্মসের অস্তিত্ব পান স্ক্যানিং অপারেটর। প্রশ্ন করা হলে, তার কাছে অস্ত্র থাকার বিষয়টি স্বীকার করেন মুজিবুর রহমান। তিনি সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জন। ১৯৯৯ সালে অবসর নিয়েছেন।

নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, আটক মুজিবুর রহমানের কাছে একটি এনপিপি পিস্তল ছিল। অস্ত্রের নম্বর এফএপি ৮৭৬৪৮, পয়েন্ট ৩২ বোর। আর ৩৫ রাউন্ড গুলি ছিল। পিস্তলটি ব্রাজিলের তৈরি। বাংলাদেশি টাকায় যার দাম ৯ লাখ টাকা। নিয়ম অনুযায়ী, পূর্ব ঘোষণা দিয়ে পিস্তল ও গুলি নিয়ে টার্মিনালে প্রবেশ করতে হয়। মুজিবুর রহমান যেহেতু বিষয়টি কাউকেই অবহিত করেননি, তাই এটি অপরাধ। তাই তাকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, ইলিয়াস কাঞ্চনের পিস্তল বিতর্ক শেষ না হতেই গত ৮ মার্চ শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রথম চেকিং পার হওয়ার পর নিজের সঙ্গে অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করেন মামুন আলী নামে আরেক যাত্রী। পরবর্তীতে যাত্রী মামুন পিস্তল ও গুলি এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে নিয়ম মেনে সঙ্গে করে সিলেটে নিয়ে যান। এসব আলোচনার মধ্যে শাহজালাল বিমানবন্দরে অস্ত্র নিয়ে প্রবেশের অভিযোগে ১১ মার্চ (সোমবার) পূর্বে ঘোষণা ছাড়াই ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অস্ত্র ও গুলি নিয়ে প্রবেশ করায় আওয়ামী লীগ নেতা মেহেদী মাসুদ চৌধুরীকে আটক করেছিল এভিয়েশন নিরাপত্তা সংস্থা (এভসেক)। তিনি যশোরের চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফুলসর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food