যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত ৩০ লাখ ছাড়াল

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০২০, ১০:২৪ | আপডেট : ০৮ জুলাই ২০২০, ১১:৫০

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। মঙ্গলবার বেশ কয়েকটি রাজ্যে রেকর্ড সংখ্যক নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে দেশটি এ মাইলফলক পার হয়।

গত দুই সপ্তাহ ধরে প্রায় দুই ডজনেরও বেশি রাজ্যে প্রতিদিন নতুন সংক্রমণের উদ্বেগজনক উল্লম্ফনের তথ্য জানিয়েছে কর্তৃপক্ষগুলো। এটি যুক্তরাষ্ট্রের বিশাল অংশজুড়ে নতুন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ ব্যর্থ হওয়ার ইঙ্গিত।

মঙ্গলবার ক্যালিফোর্নিয়া, হাওয়াই, আইডাহো, মিজৌরি, মন্টানা, ওকালাহোমা ও টেক্সাসে দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির নতুন রেকর্ড হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের দুই বৃহত্তম রাজ্য ক্যালিফোর্নিয়া ও টেক্সাস আক্রান্তের সংখ্যার বৃহত্তম উল্লম্ফন দেখেছে, দুই রাজ্যেই ১০ হাজারেরও বেশি করে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এক টেক্সাসেই দুই সপ্তাহের মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি হয়ে গেছে।

আরও অনেক বেশি মার্কিন নাগরিক কোভিড-১৯ পরীক্ষা করতে চাওয়ায় শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেস।

ফ্লোরিডার হেলথ কেয়ার অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের তথ্যানুযায়ী, রাজ্যটির ৬৭টি কাউন্টির মধ্যে ২৫টির চার ডজনেরও বেশি হাসপাতাল তাদের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের সবগুলো ইউনিট রোগীতে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে।

এর পর হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার মতো রোগীর সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পেলে তা বহু এলাকার স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে কঠিন চাপে ফেলবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এতে শ্বাসতন্ত্রের রোগ কোভিড-১৯ এ যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়াবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে এ রোগে যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৩১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। তাদের মধ্যে মঙ্গলবার মারা গেছে অন্তত ৯২৩ জন। ১০ জুনের পর একদিনে মৃত্যুর এ সংখ্যা সবচেয়ে বেশি হলেও এপ্রিলে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড দুই হাজার ৮০৬ থেকে এটি অনেক কম।       

মঙ্গলবার ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট ফর হেলথ মেট্রিক্স অ্যান্ড ইভালুয়েশন (আইএইচএমই) এর মৃত্যুর মডেলে ১ নভেম্বরের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা দুই লাখ ৮ হাজার জনে পৌঁছতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

এই মডেলে শরৎকালে প্রাদুর্ভাব ফের বৃদ্ধি পাবে বলে ধরে নেওয়া হয়েছে। গ্রীষ্মে সংক্রমণের সংখ্যা হ্রাস পাবে বলে আশা করা হলেও তা ঘটেনি বলে জানিয়েছে আইএইচএমই। 

আইএইচএমই-র পরিচালক ড. ক্রিস্টোফার মারি বলেন, ‘মহামারীর প্রথম ঢেউয়ের বাস্তব সমাপ্তির কোনো অভিজ্ঞতা যুক্তরাষ্ট্রের হয়নি, তবে এ কারণে শরৎকালে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ থেকে আমরা রেহাই পাব না।’

গত দুই সপ্তাহের তথ্য বিশ্লেষণের ভিত্তিতে রয়টার্স জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ৪২টি রাজ্যে কোভিড-১৯ এর নতুন সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে, মঙ্গলবার বিকালের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ১০০ জন নাগরিকের মধ্যে প্রায় একজন নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ