যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ১ লাখ ৮ হাজার ছাড়াল

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ জুন ২০২০, ১০:২৯

আক্রান্তের হার না কমায় করোনায় বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রে থামছে না মৃত্যুর মিছিল। টানা দুই দিনে প্রাণহানি কিছুটা কমলেও আবারও তা বাড়তে শুরু করেছে। যার সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ছাড়িয়েছে। 

একই সঙ্গে সংক্রমণ ছড়ানোর নতুন মাত্রা যুক্ত হয়েছে দেশটিতে। আগের মতো এখনো গড়ে ২০ হাজারের বেশি মানুষকে সংক্রমিত করছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। তবে বেড়েছে সুস্থতার হার।

বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী করোনায় ভয়াবহ সংকটে পড়া দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের তালিকায় যুক্ত হয়েছে ২১ হাজার ৮৮২ জন। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ১৮ লাখ ৮১ লাখ ২০৫ জনে দাঁড়িয়েছে। মৃত্যুর মিছিলে যোগ হয়েছে আরও ১ হাজার ১৩৪টি প্রাণ। যাতে মোট প্রাণহানি বেড়ে ১ লাখ ৮ হাজার ৫৯ জনে ঠেকেছে। আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৬ লাখ ৪৫ হাজার ৯৭৪ জন। 

এর মধ্যে শুধু নিউইয়র্কেই প্রাণহানি ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। যেখানে করোনার শিকার ৩ লাখ প্রায় ৮২ হাজার মানুষ। দ্বিতীয়  স্থানে থাকা নিউ জার্সিতে আক্রান্ত ১ লাখ সাড়ে ৬৩ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে প্রাণ গেছে ১১ হাজার ৭৮৩ জনের। 

ইলিনয়সে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২৩ হাজার ছুঁই ছুঁই। যেখানে প্রাণহানি ৫ হাজার ৫২৫ জনে ঠেকেছে। ক্যালিফোর্নিয়ায় ১ লাখ প্রায়১৮ হাজার মানুষের দেহ মিলেছে করোনার সংক্রমণ। প্রাণ গেছে ৪ হাজার ৩৬০ জনের।

সংক্রমণ লাখ ছাড়িয়েছে ম্যাসাসুয়েটসসে, যেখানে প্রাণহানিও ৭ হাজার পেরিয়েছে। করোনা ৭৭ হাজারের বেশি মানুষের দেহে মিলেছে পেনসিলভেনিয়ায়। মৃত্যু হয়েছে সেখানে সাড়ে ৫ হাজার ৬৯১ জনের।  

এ ছাড়া মিসিগান, ফ্লোরিডা ও ম্যারিল্যান্ডে বেড়েছে সংক্রমণ ও প্রাণহানি। এ তিন অঙ্গরাজ্যেই আক্রান্ত অর্ধ লাখের বেশি করে। এর মধ্যে সর্বোচ্চ সাড়ে ৫ হাজার মৃত্যু হয়েছে মিসিগানায়। এরপরই ফ্লোরিডায় আড়াই হাজার ও ম্যারিল্যান্ডে ২ হাজার ৬শ। 

দেশটিতে সবচেয়ে কম আক্রান্ত ও মৃত্যু ভার্জিন আইসল্যান্ডসে। যেখানে এখন পর্যন্ত ৭০ জনের দেহে মিলেছে করোনার সংক্রমণ। আর তাতে প্রাণ হারিয়েছেন মাত্র ৬ জন। 

এমন অবস্থায় ভয়াবহ বিপর্যয়ে পড়া যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে লকডাউন তুলে নেয়ার চিন্তা করছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এ জন্য সব অঙ্গরাজ্যগুলোর গর্ভনরকে চাপ দিয়ে আসছেন তিনি। 

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ