রাস্তায় যত্রতত্র মৃতদেহ, অথচ সরকারি হিসাব ৩৫০

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৩৯

চিন, ইটালি, স্পেন, ফ্রান্স, আমেরিকার পর লাতিন আমেরিকার আরেকটি দেশকে নাস্তানাবুদ করে ফেলেছে করোনা। সেটি হল ইকুয়েডর। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী ইকুয়েডর এখন এক ভয়াল মৃত্যুপুরী। শহরের যেখানে সেখানে পড়ে মৃতদেহ। ইয়ত্তা নেই মৃত্যুর সংখ্যার।

বেশি খারাপ পরিস্থিতি ইকুয়েডরের সবচেয়ে জনবহুল শহর গুয়াইয়াকিলে। এই শহরটি একপ্রকার মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। যত না জীবন্ত মানুষ দেখা যাচ্ছে, তার থেকে বেশি দেখা যাচ্ছে লাশ। সরকারি হিসেবে মৃত্যুর সংখ্যা মোট সাড়ে তিনশো মোটে। কিন্তু ঘরে ঘরে যখন মৃত্যু মিছিল তখন হিসেব রাখবে কে। শুধু গুয়াইয়াকিলের স্থানীয় হাসপাতালগুলিই বলছে প্রতিদিন গড়ে ১০০-র বেশি মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। মর্গে জায়গা নেই। জায়গা নেই কবরস্থানে। হাসপাতালগুলি তাই কোনক্রমে ঢাকা দিয়ে খোলা জায়গাতেই ফেলে রাখছে দেহ। যেখানে সেখানে মৃতদেহগুলি এলোমেলোভাবে পড়ে আছে।

শহরের প্রতিটি বাড়িতেই কারও না কারও করোনার উপসর্গ ধরা পড়েছে। তাদের পরীক্ষা বা চিকিৎসার ব্যবস্থা নেই। একাধিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের দাবি, করোনার জেরে ইকুয়েডরে মৃতের সংখ্যাটা আমেরিকাকেও পেরিয়ে যেতে পারে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ