করোনার ‘ওষুধ’ আবিষ্কারের দাবি চীনের, কাজ করবে ৯৯.৯ শতাংশ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ মার্চ ২০২০, ০৯:১০

বর্তমান সময়ের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের নাম করোনা ভাইরাস যা কভিড-19। দুনিয়াজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৫ হাজার। আক্রান্ত প্রায় সাড়ে ৭ লাখ। বিশ্বের বড় বড় বিজ্ঞানী, গবেষকরা ব্যস্ত এর প্রতিষেধক তৈরিতে। এখনও সেভাবে সাফল্য আসেনি।

চীনের সরকারি মিডিয়া গ্লোবাল টাইমসের এক টুইটে দেখা দিয়েছে নতুন করে আশার আলো। এতে বলা হয়েছে, চীনের গবেষকদের দাবি- তারা করোনাকে দমন করার সবচেয়ে কার্যকরী অস্ত্র তৈরি করে ফেলেছেন, যা এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯৯.৯ শতাংশ পর্যন্ত সফল হতে পারে।

চীনের সরকারি মিডিয়া গ্লোবাল টাইমসের বরাত দিয়ে ভারতের একটি গণমাধ্যম বলছে- চীনা বিজ্ঞানীদের একটি দল করোনাকে ধ্বংস করার মোক্ষম পথ খুঁজে পেয়েছে। কোনো ওষুধ বা টিকা নয়, চীনা গবেষকরা তৈরি করেছেন একটি ন্যানোমেটেরিয়াল যা করোনার জীবাণু শুষে ফেলতে পারে বা এর কার্যক্ষমতা ৯৬.৫-৯৯.৯% পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারে।

এই ন্যানোমেটেরিয়ালটি উৎসেচকের মতো কাজ করে। বিজ্ঞানীদের মতে, এটি একটি জৈব অস্ত্র যাকে করোনার সঙ্গে লড়াইয়ের জন্যই তৈরি করা হয়েছে। এই ভাইরাসের মোকাবিলার ক্ষেত্রে এটা দেহে প্রবেশের পর শরীরের বাকি এনজাইমগুলোর মতোই কাজ করে। আর এতেই আসে সাফল্য।

এই ন্যানোমেটেরিয়াল দিয়ে পেন্ট, ফিল্টার, ইনসুলেশনের মতো জিনিস তৈরি হতে পারে। ইতোমধ্যেই চীনের ওই গবেষক দল বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে কথা বলছেন এই ন্যানোমেটেরিয়াল দিয়ে মাস্ক ও চিকিৎসকদের জন্য পিপিই বানানর জন্য। তবে চীনের বাইরে থেকে এ খবরের সত্যতা যাচাই করা সম্ভব নয়।

উল্লেখ্য, সোমবার (৩০ মার্চ) রাত পর্যন্ত এ ভাইরাসে মারা গেছেন ৩৫ হাজার ৩৪৯ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৪৩ হাজার ৯৯ জন। শুধুমাত্র ইতালিতেই মারা গেছেন ১০ হাজার ৭৭৯ জন। এছাড়া স্পেনে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৩৪০ জনের। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ১ লাখ ৪৫ হাজার ৬৮৯ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজার ৬০৬ জন।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ