ওবামাকে হত্যার জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছিল যারা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৩:৩৭

মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) বলেছে, নিউ মেক্সিকো মিলিশিয়া গ্রুপের একজন সন্দেহভাজন নেতা সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে হত্যার পরিকল্পনা করেছে।

বারাক ওবামা ছাড়াও ৬৯ বছর বয়সী ল্যারি মিচেল হপকিনস এবং তার দল ইউনাইটেড কনস্টিটিউশনাল প্যাট্রিয়টস হিলারি ক্লিনটন এবং ধনকুবের জর্জ সরোসকেও হত্যার পরিকল্পনা করেছেন।

এফবিআই বলেছে, তাদের কাছে এ ধরনের তথ্য রয়েছে।

সন্দেহভাজন হামলাকারী আদালতে যে জবানবন্দি দিয়েছেন সেটি এ সপ্তাহে প্রকাশ করা হয়েছে। যদিও তিনি কবে এ কথা বলেছেন সেটি পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করা হয়নি।

হপকিনসের আইনজীবী এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তার আইনজীবী বলেছেন, হপকিনস এ ধরনের কোনো পরিকল্পনা করেছেন, সেটি সম্পূর্ণ মিথ্যা।

গত সোমবার হপকিনসকে নিউ মেক্সিকোর একটি আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র এবং বিস্ফোরক রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে।

তাকে গত শনিবার আটক করা হয়েছে। এর আগে নিউ মেক্সিকোর সীমান্তে মরুভূমিতে তার দল বেশ কিছু অভিবাসন প্রত্যাশীকে আটক করেছিল।

তবে এই দলটি বলছে, আমেরিকার দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে অভিবাসন প্রত্যাশীরা যাতে সে দেশে ঢুকতে না পারে সে জন্য তারা মার্কিন সীমান্ত রক্ষীদের সাহায্য করছিল। কিন্তু সীমান্তে এই দলটির কর্মকাণ্ড নিয়ে অনেকে সমালোচনা করেছেন।

২০১৭ সালে এফবিআই এ দলটি সম্পর্কে অবগত হয়। তখন এফবিআই জানতে পারে যে ইউনাইটেড কন্সটিটিউশনাল প্যাট্রিয়ট নামের সংগঠনটি হপকিনসের বাড়ির বাইরে থেকে কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে। তাদের ২০ জন সদস্য আছে। তাদের কাছে একে-৪৭ রাইফেল এবং অন্যান্য অস্ত্র থাকার খবর আসে এফবিআইয়ের কাছে।

এফবিআইয়ের বিশেষ এজেন্ট ডেভিড গ্যাব্রিয়েল আদালতে যে এফিডেভিট দাখিল করেছেন সেখানে বলা হয়েছে, ‘হপকিনস বক্তব্য দিয়েছে যে ইউনাইটেড কনস্টিউশনাল প্যাট্রিয়ট প্রশিক্ষণ দিচ্ছিল জর্জ সরোস, হিলারি ক্লিনটন এবং বারাক ওবামাকে হত্যা করার জন্য। কারণ তারা আনটিফা নামের একটি বামপন্থি গ্রুপকে সমর্থন করেন।’

অভিযুক্ত হপকিনসের আইনজীবী ও’কনেল প্রশ্ন তোলেন, তার মক্কেলকে কেন দুই বছর আগে আটক করা হয়নি?

তিনি আরও বলেন, ২০১৭ সালে এফবিআই হপকিনসের বাড়ি তল্লাশি করেছিল। সে সময় তার বাড়িতে যেসব অস্ত্র পাওয়া গিয়েছিল, সেগুলোর মালিক ছিলেন হপকিনসের স্ত্রী। কিন্তু সে সময় এফবিআই হপকিনসকে আটক করেনি।

অভিযুক্তের আইনজীবী প্রশ্ন করেন, ‘এটা যদি এতই ভয়ঙ্কর অপরাধ হতো, তা হলে তখন তাকে সঙ্গে সঙ্গেই কেন আটক করা হয়নি?’

হপকিনসের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে সেগুলো প্রমাণিত হলে তার ১০ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।
খবর বিবিসি

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food