পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে দুই কোরিয়ার ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষর

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:৩৬

উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ে এক ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। 

পিয়ংইয়ংয়ে সফরে থাকা দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইন এবং উত্তরের কিম জং উনের মধ্যে স্বাক্ষরিত সুদূরপ্রসারি এ চুক্তি দুই কোরিয়ার সম্পর্কের মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে। 
দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইন এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, উভয় পক্ষই পারমাণবিক নিরস্ত্রিকরণের একটা পথ বের করার ব্যাপারে ঐকমত্যে পৌঁছেছে। কিম জং উন উত্তর কোরিয়ার একটি প্রধান ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ কেন্দ্র বন্ধ করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন সামরিক শান্তি রক্ষায় এ উপদ্বীপকে আরও একধাপ এগিয়ে নেওয়ার পদক্ষেপ হিসেবে অভিহিত করেন এ চুক্তিকে।

এ সময় দুই দেশের নেতা কোরিয়া যুদ্ধের কারণে বিচ্ছিন্ন হওয়া পরিবারদের একত্র হওয়ার অনুমতি দেওয়া ব্যাপারে সম্মত হন। এ ছাড়া দেশ দুটির মধ্যে রেল যোগাযোগ স্থাপন এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে একে অপরকে সহযোগিতা করার ব্যাপারেও পরিকল্পনা করেন তারা।

চুক্তি স্বাক্ষরের পর দক্ষিনের প্রেসিডেন্ট মুন বলেন, উত্তর কোরিয়া টোংচাংরি ক্ষেপণাস্ত্র পরিক্ষা এবং উৎক্ষেপণ কেন্দ্রটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করার ব্যাপারে রাজি হয়েছে।

উত্তরের নেতা কিম জং উন বলেন, তিনি তার প্রতিবেশী দেশের নেতাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে আগামীতে দক্ষিণ কোরিয়া সফরে যাবেন।

যদি অদূর ভবিষ্যতে কিম জং উন দক্ষিণ কোরিয়া সফরে যান তা হলে এটাই হবে উত্তরের কোনো সর্বোচ্চ নেতার প্রথমবারের মতো দক্ষিণ কোরিয়া সফর।

এ ছাড়া দুই দেশের মধ্যে সামরিক উদ্বেগ কমাতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং উত্তর কোরিয়ার সেনাপ্রধানের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয় এ সফরে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুনের ৩ দিনের সফরের দ্বিতীয় দিনে উভয় পক্ষের মধ্যে ই চুক্তি সই হলো। গত এক দশকের মধ্যে এই প্রথম দক্ষিণ কোরিয়ার কোনো নেতা উত্তর কোরিয়া সফরে এলেন। গত এপ্রিলে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইনের প্রথম ঐতিহাসিক বৈঠকের পর চলতি বছর এটি উভয় নেতার তৃতীয় সাক্ষাৎ।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ