ত্বকের ক্যানসার ঠেকানোর ৩ উপায়

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:১৭

সারা বছর ত্বকে কম-বেশি র‌্যাশ, প্রদাহ বা ঘামাচি আকছার হয়ে থাকে আমাদের। কিন্তু ত্বকের বেশ কিছু সমস্যাকে অবহেলা করলে তা কিন্তু মারাত্মক আকার নিতে পারে। আমাদের ত্বকের নানা স্তর এতই স্পর্শকাতর হয় যে আমাদের অসতর্কতার ফলে ছোট কোনো প্রদাহ বা র‌্যাশ থেকেও চামড়ায় হানা দিতে পারে ক্যানসারের মতো মরণর‌্যাধি।

ত্বক বিশেষজ্ঞদের মতে, সারা বছরই ত্বকের যত্নে কমবেশি সচেতনতা অবলম্বন করতে হয়। কিন্তু কর্মব্যস্ত জীবন ও আধুনিক জীবনযাত্রাকে আঁকড়ে ধরতে গিয়ে আমরা বেশির ভাগ সময়ই ত্বক নিয়ে অত সচেতন থাকি না। অনেকে আবার ত্বকের যত্ন বলতে কেবল পার্লার বা ঘরোয়া উপায়ে প্রসাধনের কথাই ভাবেন। কিন্তু সারা বিশ্বে ত্বকের ক্যানসার ইদানীং বেশ পরিচিত অসুখ। তাই কিছু সচেতনতা মেনে চললেই বিপদ মুক্ত থাকা যায়।

কী কী সতর্কতা অবলম্বন করলে ত্বকের ক্যানসার থেকে সহজেই দূরে রাখতে পারবেন নিজেকে? দেখে নিন বিশেষজ্ঞদের মতামত।

>> দীর্ঘ সময় ধরে অতিরিক্ত রোদে ঘোরাঘুরি করা আজই বন্ধ করুন। তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়ালেই সতর্ক হোন। যখনই রোদে বেরোবেন শরীরের সমস্ত খোলা অংশে সানস্ক্রিন মাখুন। আর অবশ্যই বাজারচলতি নয়, চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে আপনার ত্বকের উপযুক্ত সানস্ক্রিন বাছুন। দীর্ঘ সময় ধরে কড়া সূর্যালোক সরাসরি ত্বকে লাগলে তা চামড়াকে পুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ক্যানসারও ডেকে আনে।

>> অনেককেই পেশার প্রয়োজনে চড়া মেক আপ নিতে হয়। কেউ আবার সব সময়ই চড়া মেক আপে প্রসাধন সারেন। যাদের পেশার প্রয়োজনে ঘন ঘন চড়া মেক আপ নিতেই হয়, তারা বাড়ি ফিরেই ভাল করে ত্বক পরিষ্কার করুন। তার পর ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী, প্রয়োজনীয় ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুন। যারা অকারণেই চড়া মেক আপ পছন্দ করেন, তারা সচেতন হোন। মেক আপের কেমিক্যালস ত্বকের কোষের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। দার্ঘ দিন ত্বকের ওপর এ সব কেমিক্যালসের আস্তরণ ক্যানসার ডেকে আনে। ঘন ঘন ব্লিচ করার প্রবণতাও কমিয়ে ফেলুন। বরং আস্থা রাখুন ঘরোয়া উপায়ে ত্বক চর্চার। একান্তই ব্লিচ করাতে হলে তিন মাস অন্তর করান।

>> ত্বকের ক্ষেত্রে নিয়মিত চেক আপ তো দূর, খুব একটা সমস্যায় না পড়লে আমরা কোনওভাবেই চিকিৎসকের কাছে যাই না। কিন্তু এই অবহেলার কারণেই রোগ বড় আকার ধারণ করতে পারে। তাই প্রতি মাসে নিজের ত্বক পরীক্ষা করুন। ছোট কোনো অসুখকে দীর্ঘ দিন ফেলে রাখলে তা-ই পরে বড় আকার ধারণ করে। তাই বিশেষজ্ঞ দিয়ে নিয়মিত ত্বক পরীক্ষা করান। ত্বকে অস্বাভাবিক কোনও দাগ বা প্রদাহ দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের কাছে যান।
তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food