বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৩৬

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ মুক্ত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে পালিত হচ্ছে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯৭৬ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর চলচ্চিত্রকার আলমগীর কুমকুম, খ্যাতিমান অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী, চিত্রনায়ক আলমগীর ও অরুন সরকার রানা’র নেতৃত্বে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি নিয়ে সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর ভবনের সামনে স্থাপিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ, সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা পরে বনানী কবরস্থানে ১৫ আগস্ট শহীদদের কবর জিয়ারত, জাতীয় চারনেতার কবর জিয়ারত ও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলমগীর কুমকুমের কবর জিয়ারত করেন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এসময় স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে শপথ গ্রহণ করেন। বঙ্গবন্ধু সাংগঠনিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানার নেতৃত্বে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করেন চিত্রনায়িকা অরুনা বিশ্বাস, চিত্রনায়িকা প্রিয়দর্শীনীখ্যাত মৌসুমী, অভিনেত্রী তানভীর সুইটি, চিত্রনায়িকা শাহনূর, চিত্রপরিচালক রফিকুল ইসলাম বুলবুল, কন্ঠশিল্পী কল্লোল সারোয়ার, কন্ঠশিল্পী করিম খান,  জয়দেব রায়, চিত্রপরিচালক ফারুক, কন্ঠশিল্পী বৃষ্টি রাণী সরকার, নাট্যশিল্পী হাবিবুল্লাহ রিপন-সহ বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের নেতৃবৃন্দ।

অরুন সরকার রানা বলেন, যে সময় জাতির পিতার নাম নিষিদ্ধ করা ছিল, আওয়ামী লীগের চরম দুঃসময়ে এই সংগঠনের সৃষ্টি হয়েছে। সাংস্কৃতিক কর্মীরা জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে। আমাদের অঙ্গীকার হবে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদমুক্ত বাংলাদেশ গঠন।

চিত্রনায়িকা অরুনা বিশ্বাস বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিলেন তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সে কাজ বাস্তবায়ন করে চলেছেন। আমরা শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবো।

প্রিয়দর্শীনী খ্যাত মৌসুমী বলেন, জাতির পিতা দেশ স্বাধীন করে দিয়ে গেছেন। স্বাধীন দেশকে অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য তার কন্যা শেখ হাসিনা কাজ করছেন। একটি কুচক্রীমহল বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করার পায়তারা করছে। তারা বিদেশে বসে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। দেশবাসীকে সতর্ক থাকতে হবে।

চিত্রনায়িকা শাহনূর বলেন, আমরা যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী তাদের প্রত্যেকের উচিত জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে স্বাধীনতা বিরোধীদের সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা নির্মাণ করা।

তানভীন সুইটি বলেন, আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর কন্যার হাতকে শক্তিশালী করার জন্যই আমরা কাজ করে যাবো। যতই ষড়যন্ত্র হোক না কেন সকল ষড়যন্ত্রই আমরা সাংস্কৃতিক কর্মীরা মোকাবেলা করব।


এবিএন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ