সিবিআই তদন্তে আপত্তি নেই জানালেন রিয়া!

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ আগস্ট ২০২০, ০৯:৪৭

সুশান্ত সিং রাজপুত মামলার তদন্ত সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিলে কোনও আপত্তি নেই বলে জানিয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। গতকাল বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে লিখিতভাবে এই তথ্য জানান তিনি। তবে এই মামলায় বিহার পুলিশের বাড়াবাড়ি একেবারেই বেআইনি বলে দাবি করছেন রিয়ার আইনজীবী।

বিহার সরকারের তরফ থেকে গত সপ্তাহেই কেন্দ্রীয় সরকারকে জানানো হয়েছিল সিবিআই তদন্তের জন্য। সেই আবেদন অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারের সলিসিটর জেনারেল দেশের শীর্ষ আদালতের কাছে সুপারিশ জানায়। অন্যদিকে, রিয়া চক্রবর্তীও সুশান্তের বাবার দায়ের করা মামলা পাটনা থেকে মুম্বইতে নিয়ে আসার আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। ১১ আগস্ট সেই মামলার শুনানি থাকলেও রায় স্থগিত রাখে দেশের শীর্ষ আদালত। নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল প্রত্যেক পক্ষকেই রিপোর্ট জমা দিতে হবে বৃহস্পতিবার। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী প্রত্যেকেই গতকাল লিখিত রিপোর্ট জমা দিয়েছে।

সেখানেই সুশান্তের বাবা কৃষ্ণকুমার সিং সুপ্রিম কোর্টকে লিখিতভাবে জানান যে মুম্বই পুলিশের উপর কোনওরকম ভরসা নেই তাঁদের। খুব শিগগিরিই যেন এই মামলা সিবিআই-কে তদন্ত শুরুর ছাড়পত্র দেওয়া হয়। অন্যদিকে এ প্রসঙ্গে সুপ্রিম কোর্টকে বিহার পুলিশও লিখিত জবাব দিয়েছে। বিহার সরকারের আইনজীবীর কথায়, পুলিশ আধিকারিক বিনয় তিওয়ারিকে তদন্তের জন্য গত ২ আগস্ট মুম্বইতে পাঠানো হয়। তবে কোয়ারেন্টাইনের নামে তাঁকে আটক করে কাজ করতে দেওয়া হয়নি। এমনকী বিহার থেকে যে ৪জন পুলিশের টিম গিয়েছিল, তাদেরও তদন্তে বাঁধা দেওয়া হয়। তাই, এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাকে সুশান্ত মামলার তদন্তে শুরুর নির্দেশ দেওয়াই উচিত বলেই মনে হয়।

প্রসঙ্গত, সুশান্ত মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে এ পর্যন্ত বিহার পুলিশ এবং মুম্বাই পুলিশের মধ্যে একাধিকবার ঝামেলা বেঁধেছে। মহারাষ্ট্র ও বিহার-এই দুই রাজ্য সরকারের মধ্যেও বিরোধ কম হয়নি এ নিয়ে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সুশান্ত এবং রিয়ার পক্ষের আইনজীবী, মহারাষ্ট্র-বিহার সরকারের কাউন্সেল যথাক্রমে অভিষেক মানু সিংভি ও মনিন্দর সিং সব পক্ষই সুপ্রিম কোর্টে সুশান্ত মামলা নিয়ে লিখিত জমা দিয়েছেন। অন্যদিকে সুশান্তের দুই প্রাক্তন প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখাণ্ডে এবং কৃতি শ্যাননও অভিনেতার মৃত্যুর ন্যায়বিচার চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ