মৃত্যুর আগে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করছিলেন দিশা, সামনে এল সেই ভিডিও!

  জি নিউজ

০৯ আগস্ট ২০২০, ১২:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

গত ৮ জুন, মুম্বাইয়ের মালাড-এর একটি বহুতল থেকে পড়ে মৃত্যু হয় দিশা সালিয়ানের। প্রাক্তন ম্যানেজারের মৃত্যুর কয়েকদিন পরই মৃত্যু হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের। এই দুই মৃত্যুই আত্মহত্যা বলে জানিয়েছিল মুম্বাই পুলিশ। যদিও সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ করেন, দিশা বা সুশান্ত কেউই আত্মহত্যা করেননি, তাদের দুজনকেই খুন করা হয়েছে। জানা যায়, ৮ জুন মালাড-এর ওই ফ্ল্যাটে পার্টি করছিলেন দিশা। 

এবার প্রকাশ্যে এসেছে এমন একটি ভিডিও, যেখানে দিশা সালিয়ানকে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করতে দেখা যাচ্ছে। যে পার্টিটি হয়েছিল দিশার বন্ধুর ফ্ল্যাটে। দাবি করা হচ্ছে ওই পার্টির পরই মৃত্যু হয় দিশা সালিয়ানের। যে ভিডিওতে 'মিশন কাশ্মীর'-ছবির গানে নাচতে দেখা যাচ্ছে দিশাকে। দেখুন সেই ভিডিও...

 

এই ভিডিওতে দিশাকে তার হবু স্বামী ছাড়াও আরও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে দেখা যাচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে, এই ভিডিওটি দিশার মৃত্যুর ঠিক ১ ঘণ্টা আগের ভিডিও। প্রশ্ন উঠছে যে দিশা এভাবে হাসিখুশি পার্টি করছিলেন, তিনি কীভাবে আত্মহত্যা করতে পারেন? কেউ আবার প্রশ্ন তুলেছেন এটা কি সত্যিই দিশার শেষ পার্টির ভিডিও?

 

এদিকে সম্প্রতি জানা গেছে, দিশার মৃত্যুর ২ দিন পর এসেছিল ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। অভিযোগ, অস্বাভাবিক মৃত্যু হওয়া সত্ত্বেও এই রিপোর্ট পেতে কোনও আগ্রহই দেখায়নি মুম্বাই পুলিশ। যেখানে দিশার মৃত্যু হয়েছিল, সেখানে কোনও ফরেন্সিক দল পাঠানো হয়নি। পরবর্তী ফরেন্সিক পরীক্ষা বা তদন্তের প্রয়োজনে দিশার পরিহিত পোশাকও সংরক্ষণ করা হয়নি। দিশার নোখের কোনও অংশও সংরক্ষিত করা হয়নি। দিশার ফোনের সমস্ত তথ্য পুনরুদ্ধারের জন্য ৪ দিন পর পাঠানো হয়েছিল, যদিও সেটা এখনও সম্পন্ন হয়নি। যে স্থানে দিশার মৃত্যুর হয়েছিল সেই জায়গাটিও সিল করেনি মুম্বই পুলিশ। এমনকি দিশার মৃত্যুর পর কোনও ছবিও তুলে রাখা হয়নি বলে অভিযোগ।  এদিকে দিশার ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুসারে দিশার মাথা ও শরীরের একাধিক অংশে অস্বাভাবিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

সম্প্রতি মুম্বাই পুলিশের ডিসিপি বিশাল ঠাকুর বলেছেন, তারা দিশার ভিসেরা রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছেন।

বিশাল ঠাকুর বলেন, আমরা বলতে পারছি না দিশা কীভাবে পড়ে গিয়েছিলেন। তদন্ত চলছে। অনেক মানুষ সালিয়ানকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক তথ্য শেয়ার করছেন। তাদের কাছে অনুরোধ করছি এই মামলার সঙ্গে জড়িত কোনও উল্লেখযোগ্য তথ্য কারোর জানা থাকলে তারা দয়া করে সেটা মুম্বাই পুলিশকে জানান। তাহলে সঠিকভাবে তদন্ত হতে পারে।''

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ