উন্মুক্ত হলো আইয়ুব বাচ্চুর সেই রূপালি গিটার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:১৭

রুপালি গিটার ফেলে আমাদের সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ব্যান্ডতারকা আইয়ুব বাচ্চু। তিনি চলে গেছেন কিন্তু রয়ে গেছ তার অনবদ্য সৃষ্টি। আর তাইতো তার স্মরণে চট্টগ্রাম মহানগরীর প্রবর্তক মোড়ের গোলচত্বরে স্থাপিত হয়েছে রুপালি গিটারের প্রতীক। বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় এই ভাস্কর্য উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন।

স্টিলের পাতে তৈরি ১৮ ফুট উঁচু গিটারটিতে রয়েছে ৬টি তার। চট্টগ্রামের গোলপাহাড় মোড় থেকে প্রবর্তকের দিকে যাওয়ার সময় গিটারটির সামনের অংশ চোখে পড়বে। পশ্চিম মুখ করে গিটারটি বসানো হয়েছে। মোড়ের সৌন্দর্য বর্ধণে বসানো হয়েছে বর্ণিল আলো ও জলের ফোয়ারা। ভাস্কর্য উদ্বোধন উপলক্ষ্যে সন্ধ্যায় ফোয়ারার পানি ছাড়া হয়। এ ছাড়া দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জা করা হয় এলাকাটিতে।

উদ্বোধনী আয়োজনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ.জ.ম নাছির বলেন, এই রূপালী গিটার ফেলে আইয়ুব বাচ্চু বহুদূরে চলে গেলেও কর্মই তাকে আমাদের মধ্যে চিরজীবী করে রাখবে। আমরা সবাই একদিন মরে যাবো, বহুদূরে চলে যাবো। কিন্তু আমরা যদি ভালো কাজ করতে পারি তবে সে ভালো কাজগুলোই আমাদের বাঁচিয়ে রাখবে। যেমন মরণের পরেও আমাদের সবার বুকের মধ্যে বাচ্চুর স্মৃতি অম্লান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সিটি কর্পোরেশনে সিইও সামসুদৌহা, প্রধান স্থপতি রেজাউল করিম, আইয়ুব বাচ্চুর ভাই ইরফান ও ভাস্কর্য করণে আর্থিক সহায়ক প্রতিষ্ঠান কেডিএস গ্রুপের কর্মকর্তাগণ।

ভাস্কর্য স্থাপনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে আইয়ুব বাচ্চুর ছোট ভাই ইরফান বলেন, এমন একটি উদ্যোগ নেয়ায় আমি এবং আমার পরিবার সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের কাছে কৃতজ্ঞ। সবাই দোয়া করবেন আপনাদের প্রিয় আইয়ুব বাচ্চু যেন জান্নাতবাসী হন।

প্রসঙ্গত, আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রবর্তক মোড় ও আশপাশের এলাকার নগরের সৌন্দর্যবর্ধনের কাজটি করছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান আর্ডিওস ইংক ও স্ক্রিপ্ট। এ কাজের মধ্যে রয়েছে বিউটিফিকেশন, ওয়াকওয়ে নির্মাণ, দেয়ালে ম্যুরাল এবং রাস্তার পাশে সবুজায়ন।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ