ভেঙে গেল পপ গায়িকা মাইলির সংসার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৯, ১৭:২৩

গতকাল শনিবার ‘পিপল’ ম্যাগাজিন জানিয়েছে, মাত্র আট মাসেই ভেঙে গেছে মাইলি সাইরাস আর লিয়াম হেমসওয়ার্থের সংসার। তাঁদের এক ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়ে, পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতেই তাঁরা বিবাহ বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এখন তাঁরা নিজেদের আর কাজের দিকে মন দেবেন। 

মার্কিন পপ গায়িকা মাইলি সাইরাস আর অস্ট্রেলিয়ার অভিনেতা লিয়াম হেমসওয়ার্থ বিয়ে করেছিলেন গত বছর ২৩ ডিসেম্বর। এর পর ২৭ ডিসেম্বর বিয়ের একটি ছবি টুইটারে পোস্ট করে মাইলি সাইরাস লিখেছেন ‘১০ বছর পরে।’ সেই পোস্টের সঙ্গে ছিল একটি ছবি। তাতে দেখা যায়, মাইলি সাইরাস আর লিয়াম হেমসওয়ার্থ একে অপরকে আলিঙ্গন করে আছেন। এর আগে গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার দাবানলে ঘরবাড়ি হারান মাইলি সাইরাস। ফলে টেনেসি অঙ্গরাজ্যে তাঁর ফ্রাঙ্কলিনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন এই দুই তারকার পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বন্ধু।

‘দ্য লাস্ট সং’ ছবির শুটিং সেটে পরিচয় হয় লিয়াম হেমসওয়ার্থ ও মাইলি সাইরাসের। তারপর প্রেম। এক দশক প্রেম করার পর বিয়ে করেন তাঁরা। মাইলি সাইরাস আর লিয়াম হেমসওয়ার্থের বাগদান হয় ২০১২ সালে। মান-অভিমানের ঝড়ে পরের বছরই বিচ্ছিন্ন হয়ে যান তাঁরা। ২০১৫ সাল থেকে আবারও তাঁরা একসঙ্গে থাকতে শুরু করেন। আবারও ঘোষণা দিয়ে বাগদান করে এ জুটি। নভেম্বরের দাবানলের পর টুইট করে মাইলি জানান, তিনি ও হেমসওয়ার্থ নিরাপদে আছেন। কিন্তু মালিবুতে তাঁর বাড়িটি আর নেই। দাবানলে ছাই হয়ে গেছে সব। তারপর থেকেই ফ্রাঙ্কলিনের বাড়িতে থাকতে শুরু করেন এই দুই তারকা।

মাইলি সাইরাস ছিলেন ভয়ংকর রকমের মাদকাসক্ত। একটি মার্কিন সাময়িকী তখন তাঁর মাদকাসক্তি নিয়ে তৈরি প্রতিবেদনে লিখেছিল, কোনো মাদক নেই, যা মাইলি সেবন করেননি। গাঁজা থেকে শুরু করে হেরোইন, কোকেন, এলএসডি, আরও কত নাম না-জানা মাদক সবই নিয়মিত সেবন করতেন এই তারকা। তা ছাড়া এই মাদকের প্রভাবেই তাঁর জীবনযাপনও হয়ে ওঠে উচ্ছৃঙ্খল। 

এবিএন/নির্মল/জসিম/এনকে

এই বিভাগের আরো সংবাদ