সারাদিন ঘরে নিজেকে বন্ধ করে কাঁদতাম: পরিণীতি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১৯:৫১

বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া ২০১৩ সালেই তার সিনেমার অভিষেক। কিছুদিন আগেই ৩০ বছরের পরিণীতি স্বীকার করেছিলেন তিনিও হৃদয় ভাঙার যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন। এবং সেই সময়টা ছিল তাঁর জীবনের সবচেয়ে কঠিন অধ্যায়। তবে কে তাঁর প্রাক্তন প্রেমিক সে সম্পর্কে বিন্দুমাত্র হিন্ট দিলেন না পরিণীতি। অকপট পরিণীতি বলেন, ‘সেই সময় পর্যন্ত জীবনে কখনও কোনও রিজেকশন বা ব্যর্থতা দেখিনি। তাই ওই ধাক্কাটা আমার জন্যে খুব বড় ছিল। তবে ওটাই প্রথম এবং শেষ। জীবনটা কেমন ওলট পালট হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু আজ বুঝি ওই ঘটনা আমাকে কতটা অভিজ্ঞ এবং ম্যাচিওর করে দিয়েছিল। ঈশ্বরের কাছে আমি কৃতজ্ঞ জীবনের শুরুতেই এমন একটি অভিজ্ঞতার মুখোমুখি আমাকে দাঁড় করানোর জন্যে।’ 

এবার তিনি আরও একটি বিষয়ে খোলামেলা আলোচনা করলেন। অকপট পরিণীতি জানালেন, ‘২০১৪ সালের শেষ থেকে গোটা ২০১৫ সাল। খুব খারাপ কেটেছিল আমার জীবনে। আমার দুটি ছবি কিল দিল এবং দাওয়াত-ই-ইশক একেবারেই কাজ করেনি। হঠাত্‌ করেই দেখলাম হাতে টাকা নেই। তখন একে তো প্রেম ভাঙার যন্ত্রণা, অন্যদিকে নিজের বাড়ি কেনায় অনেক টাকা ঢুকে গিয়েছিল। জীবনে পজিটিভ কিছুই ছিল না যেন। খাওয়া দাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলাম। কারও সঙ্গে কথা বলতাম না, দেখা করতাম না। সারাদিন নিজেকে ঘরে বন্দি করে রাখতাম। টিভি দেখতাম, ঘুমাতাম... জম্বির মতো হয়ে গিয়েছিলাম যেন। ফিল্মি ডিপ্রেসড মেয়ের মতো হয়ে গিয়েছিলাম। বার বার অসুখে পড়ছিলাম। ৬ মাস মিডিয়ার থেকে নিজেকে এক্কেবারে দূরে রেখেছিলাম। দিনে অন্তত ১০ বার কাঁদতাম।’ 

তবে সময়ের চাকা ঘুরতে বেশি সময় লাগেনি। ২০১৬ থেকে ফের একবার নতুন করে জীবনের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিলেন তিনি। 

 

এবিএন/নির্মল/জসিম/এনকে

এই বিভাগের আরো সংবাদ