শততম মঞ্চায়নের পথে ‘আমিনা সুন্দরী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ আগস্ট ২০১৯, ০০:৪৫

পতিনিষ্ঠ আমিনা সুন্দরীর স্বামী নছর পেশায় ব্যবসায়ী। ব্যবসার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায় ভিনদেশে। স্বামীর এই বিদায় আমিনার জীবনে নেমে আসে বিভীষিকা। নছর ভিনদেশি নারীকে বিয়ে করে সংসার বাঁধে। আমিনা নানা ঘাত-প্রতিঘাতের পরে বন্দী হয় এক সওদাগরের ঘরে। প্রবল প্রতিকূলতার মুখোমুখি হয়েও আমিনা স্বপ্ন দেখে বেঁচে থাকার, দীপ্তকণ্ঠে সে বলে, ‘জীবন তো একটাই। সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না—সব এই এক জীবনের মধ্যে। জীবন শেষ তো বেবাক শেষ।’

বেঁচে থাকার চিরায়ত গল্প নিয়ে শততম মঞ্চায়নের পথে এগিয়ে চলেছে থিয়েটার আর্ট ইউনিটের নাটক ‘আমিনা সুন্দরী’। আগামী রবিবার (৪ আগস্ট) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় মঞ্চায়িত হবে নাটকটির ৮১ তম প্রদর্শনী।

চট্টগ্রামের তিনশ' বছরের পুরোনো লোকগাঁথা নছর মালুম ও ভেলুয়া সুন্দর অবলম্বনে ‘আমিনা সুন্দরী’ নাটকটি লিখেছেন প্রয়াত নাট্যবক্তিত্ব এসএম সোলায়মান। রোকেয়া রফিকের নির্দেশনায় ঢাকার মঞ্চের নন্দিত নাটকটি দেশ–বিদেশে মঞ্চায়িত হয়ে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। থিয়েটার আর্টের এই মিউজিক্যাল ড্রামাটির প্রথম প্রদর্শনী হয়েছিল ২০০৭ সালে।

‘আমিনা সুন্দরী’ প্রসঙ্গে নির্দেশক রোকেয়া রফিক বলেন, তিনশ’ বছর আগের কাহিনী হলেও এটাকে কোনো নির্দিষ্ট সময়ের গল্প বলে মনে করি না। সবকালে পৃথিবীর সব প্রান্তেই এ গল্প সত্যনিষ্ঠ। এক আমিনার গল্পে নাটকটিতে তুলে ধরা হয়েছে নারীর শতবছরের জীবনবঞ্চনার গল্প। বাঙালি নারীর চিরন্তন প্রেমের স্বরূপও এক আমিনার মধ্যে খুঁজে পাওয়া যাবে। পুরুষশাসিত সমাজে নারীর প্রতি পুরুষের প্রবঞ্চনার এমন রূপ চোখ মেললেই দেখা যাবে আশেপাশে।

থিয়েটার আর্টের ১২তম প্রযোজনা ‘আমিনা সুন্দরী’। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন সেলিম মাহবুব, কামরুজ্জামান মিল্লাত, সঙ্গীতা চৌধুরী, অপসরা মৌ, পল্লবী, ফরিদা লিমা, কামাল রায়হান, শিল্পী চৌধুরী, রেজাউল সুজন, ফেরদৌস আমিন বিপ্লব, হাসনাত প্রদীপ, নুরুজ্জামান বাবু, স্বাধীন শাহ, হাসনাত প্রদীপ, নীল চৌধুরী, চন্দন রেজা, আবু সুফিয়ান বিপ্লব প্রমুখ।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ