ফ্লাইং কিকে ভূপাতিত শোয়ার্জনেগার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ মে ২০১৯, ১১:৩৩

টার্মিনেটর তারকা হিসেবে সমধিক খ্যাতি পাওয়া আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার একসময় বডিবিল্ডার হিসেবে বিশ্বখ্যাত ছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন হলিউড তারকা ও ক্যালিফোর্নিয়ার সাবেক গভর্নর আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার।

এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, সেই অনুষ্ঠানেই হামলার শিকার হন তিনি।

অবশ্য সঙ্গে সঙ্গেই নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয় এবং হামলাকারীকেও আটক করেন নিরাপত্তা কর্মীরা।

৭১ বছর বয়সী বিশ্বখ্যাত এই হলিউড ব্যক্তিত্ব আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার ক্লাসিক আফ্রিকা অনুষ্ঠানে তার ভক্তদের মধ্যেই ছিলেন এবং মোবাইল ফোনে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ভিডিও করছিলেন।

এ সময় পেছন দিক থেকে ক্যালিফোর্নিয়ার সাবেক এই গভর্নরকে উড়ন্ত লাথি বা ফ্লাইং কিক দিলে সেখানেই পড়ে যান তিনি।

শোয়ার্জনেগার টুইটারে তাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার জন্য তার ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন এবং বলেছেন ‘উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই’।

যদিও তাকে লাথি মারার ওই ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

যাতে দেখা যাচ্ছে, জোহানসবার্গের ওই অনুষ্ঠানে প্রাণবন্ত শোয়ার্জনেগার ফটো তুলছিলেন ও দাঁড়িয়ে ভিডিও করছিলেন।

লাথির আঘাতে তিনিও যেমন পড়ে যান তেমনি হামলাকারীও তার পেছনেই পড়ে যায়।

পরে হামলাকারীদের পুলিশে হস্তান্তর করা হয় বলে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজকরা জানিয়েছেন।

পরে এক টুইট বার্তায় মিস্টার শোয়ার্জনেগার লিখেন, ‘আমি ভেবেছিলাম যে আমি ভিড়ের মধ্যে ধাক্কায় পড়ে গেছি যেটা প্রায়ই হয়। পরে আপনাদের মতো ভিডিও দেখেই কেবল বুঝতে পারলাম আমাকে লাথি দেয়া হয়েছে।’

তিনি পরে তার ভক্তদের তার ওপর হামলার বিষয়ের চেয়ে ওই অনুষ্ঠানের দিকে দৃষ্টি দেয়ার অনুরোধ করেন।

তিনি লিখেছেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকায় আর্নল্ড স্পোর্টসে ৯০টি খেলা ২৪ হাজার অ্যাথলেট অংশ নিচ্ছে। চলুন তাদের দিকেই দৃষ্টি দেই।’

প্রতি বছর মে মাসে আর্নল্ড ক্লাসিক আফ্রিকা ইভেন্টের আয়োজন করা হয় যাতে অনেকগুলো ইভেন্ট থাকে। 

কিন্তু তাকে যে এই ফ্লাইং কিক মেরেছে এবং কেন মেরেছে তার সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি।
তথ্যসূত্র : বিবিসি

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ