ঈদের নাটকে আফজাল-সুবর্ণা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ মে ২০১৮, ১৯:২৭

ঢাকা, ২৬ মে, এবিনিউজ : বাংলাদেশের টেলিভিশন নাটকে সবচেয়ে জনপ্রিয় জুটি আফজাল হোসেন ও সুবর্ণা মুস্তাফা দীর্ঘদিন পর আবারো একসঙ্গে অভিনয় করলেন। আসন্ন ঈদ উল ফিতরের জন্য নির্মিত একটি বিশেষ নাটকে জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় দুই অভিনয় শিল্পী।

নাটকে নূরুল আলমের চরিত্রে অভিনয় করেছেন আফজাল হোসেন। আর সুবর্ণা মুস্তফাকে দেখা যাবে মহিলা ঘটকের চরিত্রে। বদরুল আনাম সৌদ’র রচনা এবং আরিফ খানের পরিচালনায় নির্মিত এই নাটকটির নাম ‘নূরুল আলমের বিয়ে’।  ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানমালায় স্যাটেলাইট চ্যানেল এটিএন বাংলায় ঈদের পরদিন রাত ৮.৩০ মিনিটে প্রচার হবে নাটকটি।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে- নূরুল আলম দীর্ঘদিন ধরে বিপত্নিক।  দুই ছেলে তার, দুইজনই থাকেন দেশের বাইরে।  এরমাঝে কখনো কখনো নিজের একজন জীবন সঙ্গীর অভাব বোধ করলেও বয়সের কারনে কাউকে কখনো বলে উঠতে পারেননি কথাটা।  আর বলবেনই বা কিভাবে? বয়স তো বেলাশেষে কম হলো না তার।  

কিন্তু এবার অষ্ট্রেলিয়ার প্রবাসী ছেলে বেড়াতে এসে যাবার সময় নূরুল আলমকে বলে বিয়ে করতে।  মনে মনে অনেক খুশী হলেও অনেক অনিচ্ছা দেখায় বিয়ে করতে। তবে ছেলের জোরাজোরিতে বলে সে পূরো ব্যাপারটা ভেবে দেখবে।

ছেলে চলে যেতেই ঘটকের খোঁজ করেন নূরুল আলম। সেরা ঘটক চাই তার। কারন নিজের জন্য যথাযথ স্ত্রী চান এবার। কেননা আগের স্ত্রী বড়ই দজ্জাল ছিলো। যতদিন বেঁচে ছিলো জীবনটা তার জ্বালিয়ে পুড়িয়ে কয়লা করে দিয়েছিলো।  ঘটক আসে, থুক্কু মহিলা ঘটক।  যদিও মহিলাকে একেবারেই পছন্দ হয় না নূরুল আলমের, কিন্তু কি আর করা? শহরের সেরা ঘটক বলে কথা।

ঘটক জানতে চায় কেমন পাত্রী চাই নূরুল আলমের।  নিজের কল্পনার সব রং মিশিয়ে পাত্রীর বর্ণনা দেন নূরুল আলম।  খোঁজ শুরু হয় পাত্রীর।  নূরুল আলম ও ঘটক একের পর এক কনে দেখে যায়, কিন্তু কোনটাই পছন্দ হয় না নূরুল আলমের।

কারো বয়স বেশী তো কারো কম। কেউ বেশী শান্ত কেউ আবার বড়ই মুখরা। এই পাত্রীর খোঁজে দিন পাড় করতে করতে এক সময় নূরুল আলম আবিষ্কার করেন, ঘটকেরই প্রেমে পড়ে গেছেন তিনি।  কিন্তু সমস্যা হলো বলবেন কিভাবে? একে তো তার কল্পনার স্ত্রীর সঙ্গে কোনই মিল নেই এই মহিলার তার উপর আবার ভীষন দজ্জাল আর মুখরা।  

এমনকি তার প্রথম স্ত্রী যে কিনা জীভনটা কয়লা করে দিয়েছিলো তার, তার থেকেও ভয়ানক এই ঘটক মহিলা। নূরুল আলম বুঝে পান না কি করবেন তিনি, আর তার কপালটাই বা এমন কেনো?

এবিএন/রাজ্জাক/জসিম/এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ