আজীবন সম্মাননা পাচ্ছেন কণ্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৪

জীবন্ত কিংবদন্তী কণ্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন এবার আজীবন সম্মাননা পেতে যাচ্ছেন কলকাতার ‘বাংলা উৎসব’-এ।

কোকিলকণ্ঠি নন্দিত এই সঙ্গীতশিল্পীকে সম্মাননা জানানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, সাবিনা ইয়াসমিন বাংলা গানের একজন গুণী শিল্পী। বাংলা সঙ্গীতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য তাকে এই সম্মাননা জানানো হচ্ছে। একইমঞ্চে ভারতের সঙ্গীতশিল্পী আরতি মুখোপাধ্যায়কেও জানানো হবে এ সম্মাননা।

আগামী বছরের ৪ জানুয়ারির থেকে ‘বাংলা উৎসব’ চলবে ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত। উৎসবে যোগ দিতে ৩ জানুয়ারি কলকাতায় থাকবেন সাবিনা ইয়াসমিন।

‘বাংলা উৎসব’-এ বাংলাদেশ থেকে অংশ নেবেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, বুলবুল ইসলাম, শামা রহমান, চন্দনা মজুমদার, এন্ড্রু কিশোর, সামিনা চৌধুরী, ফাহমিদা নবী ও বাপ্পা মজুমদার। আর ভারত থেকে এই তালিকায় থাকছেন শুভমিতা, নচিকেতা চক্রবর্তী, জয়তী চক্রবর্তীসহ অনেকে।

প্রসঙ্গত, সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া গান মানুষের মনে গেঁথে আছে অনেক আগে থেকে। প্রয়াত বরেণ্য সুরকার-সঙ্গীত পরিচালক রবিন ঘোষের সঙ্গীত পরিচালনায় এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ সিনেমাতে ১৯৬২ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম গান করেন। তবে ১৯৬৭ সালে আমজাদ হোসেন ও নূরুল হক বাচ্চু পরিচালিত ‘আগুন নিয়ে খেলা’ সিনেমাতে আলতাফ মাহমুদের সঙ্গীত পরিচালনায় ‘মধু জোছনা দীপালি’ গানটি গাওয়ার মধ্যদিয়ে প্লেব্যাক গায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন।

বরেণ্য এই সঙ্গীতশিল্পী ১৯৮৪ সালে একুশে পদক, ১৯৯৬ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারসহ সর্বোচ্চ ১৩ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৭৫ সালে প্রমোদকার (খান আতাউর রহমানের ছদ্ম নাম) পরিচালিত ‘সুজন সখী’ সিনেমাতে গান গাওয়ার জন্য প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন সময়ে প্লেব্যাক করার জন্য অনেকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ