৫০০ রুপি নিয়ে মুম্বাই এসেছিলাম: দিশা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ এপ্রিল ২০১৮, ১৭:১২

বলিউড অভিনেত্রী দিশা পাটানি। ২০১৫ সালে ভারতের তেলেগু ভাষার একটি সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে পা রাখলেও বলিউডে অভিষেক ঘটে ‘এমএস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ সিনেমার মাধ্যমে। এ সিনেমাটি মুক্তির পর দর্শকদের নজরে পড়েন এই অভিনেত্রী।

বলিউডে দিশা অভিনীত দ্বিতীয় সিনেমা ‘বাঘি টু’। কথিত প্রেমিক টাইগার শ্রফের সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন তিনি। গত ৩০ মার্চ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে। মুক্তির পর বক্স অফিসে সাফল্যের ধারাবাহিকতা এখনো চলছে। শুধু তাই নয়, দিশা-টাইগার বেশ প্রশংসাও কুড়াচ্ছে।

বলিউডে দিশার বর্তমান অবস্থা বেশ শক্ত হলেও তার অভিনয় ক্যারিয়ার শুরুর দিকে মোটেই সুখকর ছিল না। অর্থনৈতিক সংকট থেকে নানারকম প্রতিবন্ধকতার মধ্য দিয়ে পথ চলতে হয়েছে তাকে। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন দিশা।

স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে দিশা পাটানি বলেন, ‘মানুষ হিসেবে আমি খুব ইতিবাচক। আমি পড়াশোনা ছেড়ে মুম্বাই চলে আসি। একজন কলেজ ছাত্রীর পক্ষে একটা অচেনা শহরে এসে মানিয়ে নেওয়া মোটেই সহজ নয়। আমি নিজে রোজগার করতাম এবং একাই থাকতাম। কোনো দিনও বাড়িতে টাকা চাইনি। ৫০০ রুপি নিয়ে মুম্বাই এসেছিলাম। একটা সময় আমার কাছে কোনো টাকা ছিল না।’

তিনি আরো বলেন, ‘স্ট্রাগল পিরিয়ডে বিজ্ঞাপনে কাজ পেতে প্রচুর অডিশন দিয়েছি। তখন এমন পরিস্থিতি ছিল, কোনো কাজ না পেলে বাড়ি ভাড়াও দিতে পারতাম না। আমার জীবন ছিল কাজ করো, বাড়ি ফেরো আর ঘুমাও।’

‘আমার ফিল্মি ব্যাকগ্রাউন্ড নেই। আমি জানি না আমার সিনেমাগুলো কেমন হবে বা এরপরেও আমায় আর কেউ কাজ করার সুযোগ দেবেন কি না। তাই আমাকে খুব সতর্ক থাকতে হয়। আমি অভিনয় করতে ভালোবাসি আর এ কাজটি করে যেতে চাই।’ বলেন দিশা পাটানি।

অভিনয় ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে বহুবার প্রত্যাখ্যানের সম্মুখীন হয়েছেন দিশা। প্রথম যে সিনেমায় দিশা কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন, কিছুদিন পর তার জায়গায় অন্য নায়িকাকে নিয়ে নিয়েছিলেন প্রযোজক। কিন্তু সমস্ত ঘটনা থেকেই দিশা শিক্ষা নিতে ভালোবাসেন বলেও জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ