আজকের শিরোনাম :

স্বামীর কাণ্ডে বিড়ম্বনায় পড়েছেন বলিউডের যে তারকারা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০২১, ১৩:২৫

পর্ন ছবি বানানোর অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। এ ঘটনায় শুধু রাজ কুন্দ্রাই যে বিপাকে পড়েছেন তা কিন্তু নয়। ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে শিল্পা শেঠিরও।

ভারতের বিনোদন জগতে এর আগেও শিল্পা শেঠির মতো পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন আরো অনেক অভিনেত্রী। তাদের স্বামীর বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য হয়েছেন অপদস্থ।

এর মধ্যে রয়েছেন- সুজান খান, নিশা রাওয়াল, দিব্যা কুমার খোসলা, মাদালসা শর্মা ও জারিনা ওয়াহাবের মতো অভিনেত্রীরা।

সুজান খান

হৃতিক রোশনের কাণ্ডে বিড়ম্বনায় পড়েছিলেন সুজান খান। যদিও তারা এখন আর এক সঙ্গে নেই। তাদের বিয়ে বিচ্ছিন্ন হয়েছে। তবে হৃতিকের সহ-অভিনেত্রীর প্রেমে পড়ার ঘটনা, কঙ্গনার নগ্ন ছবি-এসব বিষয় বেশ ভুগিয়েছে সুজান খানকে।

হৃতিক প্রথমে বারবারা মোরি, পরে কঙ্গনা রানাউতের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে ছিলেন। একপর্যায়ে কঙ্গনার নগ্ন ছবি প্রকাশ্যে আসার পর সুজানের প্রতিক্রিয়া জানতে উঠেপড়ে লেগেছিল সংবাদমাধ্যম। কঙ্গনা অবশ্য প্রকাশ্যে হৃতিকেরই পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

জারিনা ওয়াহাব

অভিনেত্রী জারিনা ওয়াহাবের স্বামী আদিত্য পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো আরো জটিল। তার বিরুদ্ধে যে শুধু ধর্ষণের অভিযোগ তা নয়, স্ত্রীকেও মারধরের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া প্রতিবেশিকেও মারধরের অভিযোগ রয়েছে। আদিত্যর তৈরি এই সব বিতর্কের আঁচ প্রত্যেকবারই এসেছে জারিনার ওপর।

দিব্যা কুমার খোসলা

দিব্যা কুমার খোসলা টি-সিরিজের মালিক ভূষণ কুমারের স্ত্রী। তিনিও স্বামীর কাণ্ডে পড়েছেন ইমেজ সঙ্কটে। কারণ তার স্বামীর বিরুদ্ধ এক মডেলকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। মুম্বাইয়ের ওশিয়ারা পুলিশ স্টেশনে বলিউডের নামী এই চিত্রনির্মাতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন ওই মডেল।

মাদালসা শর্মা

মাদালসা শর্মা। তিনি মিঠুন চক্রবর্তীর পুত্রবধূ। মিঠুনের বড় ছেলে মহাক্ষয়ের বিরুদ্ধে যখন এক অভিনেত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল, তখন অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছিল তাকেও।

নিশা রাওয়াল

অভিনেত্রী নিশা রাওয়াল। ভারতের জনপ্রিয় মডেল-অভিনেত্রী। তার স্বামী কর্ণ মেহরার তাকে নিয়মিত মারধর করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এমনকি নিশার সঙ্গে প্রতারণাও নাকি করছিলেন কর্ণ। সম্প্রতি নিশার কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যায়, নিশার কপাল ফেটে রক্ত পড়ছিল।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ