'শাহরুখ জাহান্নামে যেতে প্রস্তুত হও'

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৩৭

বলিউডের কিং খান শাহরুখ। তিনি মুসলিম ধর্মের হলেও তার স্ত্রী হিন্দু সম্প্রদায়ের। এই দম্পতি বিয়ে করলেও কেউ কারো ধর্ম পরিবর্তন করেননি, বরং দুজন দুজনের ধর্মকেই সম্মান দিয়েই আসছেন। এরই ধারায় সম্প্রতি টুইটার, ফেসবুক ও ইনন্সটাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেছেন শাহরুখ খান। সেখানে দেখা যাচ্ছে গণেশের মূর্তির সামনে দাঁড়িয়ে প্রার্থনা করছে তার ছোট ছেলে আব্রাম।

ছবিটির ক্যাপশনে শাহরুখ লিখেছেন, গনেশজি আমাদের বাড়িতে এসেছে। ছোট্ট সোনামনি তাকে ডাকছে। ছবিটি ভাইরাল হবার সঙ্গেসঙ্গে বিতর্কিত হয়ে পড়েন কিং খান। নানা কথার আক্রমণে জর্জরিত হয়ে পড়েন তিনি।

এ ঘটনায় শাহরুখ খানকে অনেক তোপের মুখে পড়তে হয়েছে। যদিও এই প্রথম নয়, এর আগেও হিন্দু ধর্মের অনেক অনুষ্ঠানে গিয়ে বিতর্কে পড়েছিলেন তিনি। তবে এবার প্রথম ছেলে আব্রামকে নিয়েও বিপাকে পড়েছেন। অনেকেই তার ধর্মের কথা মনে করিয়ে দিয়ে  নানা প্রশ্ন ছুরে দিয়েছেন। শাহরুখ! তুমি কি মুসলিম? ছেলেকে দিয়ে এ কাজটি ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেন অনেকে।

ইসলাম ধর্মের বিশ্বাস ও নিয়মরীতির কথাও শাহরুখকে মনে করিয়ে দেন বেশ কয়েকজন। মুসলমান হয়ে ঘরে সনাতনী ধর্মের দেবতার মূর্তি কেন রেখেছে শাহরুখ সে প্রশ্নও তোলেন।

ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামের পোস্টেও জমা পড়েছে ব্যাপক সমালোচনা ও কটুক্তি। 

ইসলামে বাড়িতে এমন মূর্তি রাখার অনুমতি দেয় না জানিয়ে কমেন্ট করেন কেউ কেউ। শাহরুখের এ আচরণকে ক্ষমাহীন বলে কেউ লিখেছেন, ‘ইউ আর রেডি গোয়িং টু জাহানাœম।’

বিষয়টি শাহরুখের ‘পাগলামো’ বলে আখ্যা দিয়ে আজ থেকে আর শাহরুখের ভক্ত হতে থাকতে পারছেন না বলে সোজা জানিয়ে দেয় অনেকে।

ইসলাম ধর্ম অন্য সব ধর্মকে সম্মান করতে বলে কিন্তু উদযাপন করতে নিষেধ করেছে বলে শাহরুখকে মনে করিয়ে দেন কেউ কেউ। কিং খান যেন লজ্জিত হয়ে নিজ ধর্মে ভালোভাবে ফিরে আসে সে কথা ব্যক্ত করেন একজন ফলোয়ার।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ