এলএনজি আমদানি নিয়ে ওমান ট্রেডিং-এর সঙ্গে পেট্রোবাংলার চুক্তি স্বাক্ষর

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৭ মে ২০১৮, ১৮:১৯

ঢাকা, ০৭ মে, এবিনিউজ : একাধিক উৎস থেকে ‘জি টু জি’ ভিত্তিতে ওমান থেকে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে লিকুইড ন্যাচারাল গ্যাস (এলএনজি) ক্রয়ের লক্ষ্যে পেট্রোবাংলা এবং ওমান ট্রেডিং কর্পোরেশনের (ওটিআই) চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

পেট্রোবাংলার সম্মেলন কক্ষে গতকাল রবিবার ১০বছর মেয়াদী এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

চুক্তিটিতে স্বাক্ষর করেন পেট্রোবাংলার সচিব সৈয়দ আশফাকুজ্জামান এবং ওমান ট্রেডিং কর্পোরেশন (ওটিআই)-এর পক্ষে মাহির আল জাদজালি।

আজ সোমবার এক তথ্য বিবরণীতে একথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, দেশে প্রাকৃতিক গ্যাসের বর্তমান চাহিদা ৩ হাজার ৬ শত এমএমসিএফডি। ২০১৮ সালে দৈনিক গ্যাসের উৎপাদনের পরিমাণ ২ হাজার ৭ শত ৫০ মিলিয়ন ঘনফুট-এ উন্নীত করা হলেও ২০৪১ সাল নাগাদ সকল সেক্টরের সম্মিলিত গ্যাসের চাহিদা প্রায় ৮ হাজার এমএমসিএফডি হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দেশে উৎপাদিত গ্যাসের তুলনায় এ চাহিদা অনেক বেশি হওয়ায় এ ঘাটতি পূরণে লিকুইড ন্যাচারাল গ্যাস (এলএনজি) আমদানির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

উল্লেখ্য যে, ইতিপূর্বে এলএনজি টার্মিনালসমূহে প্রতিবছর নূন্যতম ১ দশমিক ৮ হতে ২ দশমিক ৫ মিলিয়ন টন হারে এলএনজি সরবরাহের জন্য কাতারের ‘রাসগ্যাস’-এর সাথে ১৫ বছর মেয়াদি চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে।

এই এলএনজি সরবরাহের পরিমাণ হবে ইইবিএল-এর টার্মিনাল চালু হওয়া সাপেক্ষে বছরে শূন্য দশমিক ৫ মিলিয়ন টন হারে এবং সামিট এলএনজি টার্মিনাল কো. (প্রাইভেট) লিমিটেড-এর টার্মিনাল চালু হওয়া সাপেক্ষে বছরে আরো শূন্য দশমিক ৫ মিলিয়ন টন হারে অর্থাৎ সর্বমোট বছরে ১ মিলিয়ন টন।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ