রফতানি ৫০ বিলিয়ন ডলারে নিতে জোর দেয়া হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৫

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি দেশে ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ, নতুন কর্মসংস্থান তৈরি ও বিনিয়োগ উন্নয়নে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করতে চান। এক্ষেত্রে দেশের রফতানি আয় ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত করতে সর্বোচ্চ জোর দেয়া হবে। বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানো, উৎপাদন বহুমুখীকরণ, নতুন কর্মসংস্থান তৈরি ও অঞ্চলভিত্তিক উন্নয়ন গুরুত্ব পাবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার শেরেবাংলানগর ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা চত্বরে স্থাপিত অস্থায়ী কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমেলা-২০১৯ এর বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্য সচিব মফিজুল ইসলাম ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুারোর (ইপিবি) ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য উপস্থিত ছিলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘৫০ বিলিয়ন ডলার রফতানির টার্গেট রয়েছে। এক্ষেত্রে তৈরি পোশাক মূল। এর প্রবৃদ্ধি সবচেয়ে বেশি। চামড়াটা বাদে ওষুধটা ভালো করেছে। মাত্রই দায়িত্ব নিলাম। আমাদের টার্গেট পূরণে কাজ করব।’

তিনি বলেন, নতুন কর্মসংস্থান তৈরি, বিদিশি বিনিয়োগ বাড়ানোসহ সব জায়গায় কাজ করতে চাই। ময়মনসিংহে মাছ উদ্বৃত্ত আছে। সেখানে হিমাগার করা যায় কিনা তা নিয়ে ভাবব। রংপুরে কৃষিপণ্য আছে, এসব পণ্যের সঠিক ব্যবহার ও অঞ্চলভিত্তিক উন্নয়নে কাজ করার পরিকল্পনার কথা জানান তিনি।

বাণিজ্যমেলার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘এটা শুধুমাত্র বাণিজ্য নয়, আনন্দ-বিনোদনের ব্যাপার। বহু দূর-দূরান্ত থেকে মেলায় মানুষ আসেন। এজন্য মেলায় যেসব বৈচিত্র্যতা আছে- মানুষের কাছে তা তুলে ধরার প্রয়োজন রয়েছে।’

মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে চলমান শ্রমিক আন্দোলনের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এ মাসে নতুন সেলারি (বেতন) যুক্ত হতে যাচ্ছে। নতুন কোন কিছু শুরু করতে গেলে কিছু আপত্তি আসে। গতকাল সোমবার পোশাক মালিকদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা আজ আবার বসছি। আশা করি এর ভাল সমাধান পাব।’

উল্লেখ্য, সরকারি মজুরি কাঠামো বৃদ্ধি এবং এর বাস্তবায়ন দাবিতে পোশাক শ্রমিকরা গত তিন দিন যাবৎ আন্দোলন করছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুারোর (ইপিবি) যৌথ আয়োজনে আগামীকাল বুধবার শেরেবাংলানগর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশে মাঠে ২৪তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু হচ্ছে। বুধবার বিকেল ৩টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ মেলার উদ্বোধন করবেন। চলবে ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে এবার বাণিজ্যমেলা এক সপ্তাহ দেরিতে শুরু হচ্ছে। সাধারণত প্রতিবছর ১ জানুয়ারি মেলা শুরু হয়ে থাকে।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা চলবে। প্রথমবারের মতো মেলায় থাকবে অনলাইন টিকিটিং ব্যবস্থা, এতে ঘরে বসেই দর্শনার্থীরা মেলার টিকিট কিনতে পারবেন। মেলায় প্যাভিলিয়ন ও স্টলের সংখ্যা ৬০৫৷ ২২টি দেশ এবারের মেলায় অংশ নিচ্ছে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ