প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৫৯

গতকাল স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা টাকা নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও শীর্ষক শিরোনামে কয়েকটি পত্রিকা ও  নলাইনে প্রকাশিত হয়।সংবাদ টি প্রকাশিত মনজুর  আলমের স্ত্রী শরমিন আকতারের দৃষ্টিগোচর হয়। শরমিন আকতার প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

শরমিন আকতার এক বিবৃতি জানান, কয়েকটি পত্রিকা ও অনলাইনে যে সংবাদে প্রকাশিত হয়েছে তা সম্পুর্ণ মিথ্যা,বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। প্রকৃত ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি জানান,আমার স্বামী মনজুর আলম রাজমহল কমিউনিটি সেন্টারে ৫ম তলায় ডি-৪ ভাড়া বাসা থেকে প্রয়োজনীয় মালামাল সরিয়ে ফেলে। উল্টো আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার  নামে থানায় একটি মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেন।

আমাকে গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিদেশ থেকে আসার ২দিন পর আমাকে মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয়। পরে আমি উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে এসে চিকিৎসা গ্রহণ করি। তিনি বিবৃতিতে আরও জানান,আমি উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে   চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল নং -২ তে আমি বাদী হয়ে  মনজুর আলমকে বিবাদী করে একটি নারী ও শিশু নির্যাতন নং ৩১৪/২০২০ (লোহাগাড়া) মামলা দায়ের করি।
আমি মামলা দায়ের করায় আমারকে ফাঁসানোর জন্য মনজুর আলম থানায় আমিসহ আমার পরিবারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন যা সম্পুর্ণ মিথ্যা,বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। আমি প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী
শরমিন আকতার
পিতা ছিদ্দিক আহমদ
পুর্ব কলাউজান আদারচর
লোহাগাড়া,চট্টগ্রাম।
বিষয়টি শরমিনের মা-বাবা সহ এলাকার মুরব্বী,পাড়া প্রতিবশীদের থেকে খোঁজ নিয়ে জানলাম যে ঘটনাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন।
 

এবিএন/আলাউদ্দিন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ