পার্বতীপুরে উপজাতি ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা : ধর্ষক আটক

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:১০

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে উপজেলা সদর থেকে ৩২ কি.মি. দুরে মধ্যপাড়া পাথর খনি সংলগ্ন হরিরামপু ইউনিয়নের উপজাতি পল্লী শুয়ারকাটি গ্রামে এক উপজাতি দিন মজুরের পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১২) গতকাল রবিবার রাত ১২ টায় শ্লীলতাহানী ও ধর্ষণের চেষ্টা করে।

কিশোরী মেয়েটির আত্মচিৎকারে ধর্ষক তার সাইকেল রেখে পালিয়ে যায়। তবে গ্রাম বাসি দীর্ঘ প্রায় ২ঘন্টা তল্লাশি করে লম্পট ওসমান গনি (৩৫) কে আটক করে আজ সোমবার সকালে মধ্যপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে সোপর্দ করে। এ রিপোর্ট লেখার সময় বিকাল ৫টায় পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানাযায় রবিবার রাত পৌনে ১২ টার সময় হরিরামপুর ইউনিয়নের খটকার ডাঙ্গা গ্রামে মৃত আজগর আলীর পুত্র ১ সন্তানের জনক ওসমানগনী বাড়ীর দেওয়াল টোপকিয়ে ভিকটিমের শয়ন ঘরে প্রবেশ করে। এ সময় কিশোরীর মুখে কষ্টটেপ লাগিয়ে শ্লীলতাহানী এবং ধর্ষনের চেষ্টা করে। তবে কিশোরী তার মুখের টেপ এক সময় খুলে ফেলতে সক্ষম হয়। তার আত্মচিৎকারে লম্পট ওসমানগনী ঘর থেকে বেরিয়া বাইসাইকেল রেখে আত্ম গোপন করে।

 এ সময় উপজাতিরা তীর ধনুকসহ দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে লম্পটকে খুজতে শুরু করে। রাত ২টার দিকে তাকে জঙ্গল এলাকা থেকে আটক করে গ্রামবাসী। এ ঘটনায় পার্বতীপুরে মডেল থানা পুলিশ আটক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। এদিকে বাংলাদেশ আদিবাসী পরিষদের সভাপতি রবীন্দ্র নাথ সরেন এ ঘটনার জড়িত ব্যক্তি বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহবান জানান।
 

এবিএন/এম এ জলিল সরকার/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ