লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে বিকাশ প্রতারক চক্রের এক সদস্য আটক

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০১৮, ২১:৩০

লক্ষ্মীপুর, ৩১ জুলাই, এবিনিউজ : বিকাশ গ্রাহকদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে অর্থ ছিন্তাই করে এমন চক্রের সদস্য শাহাদাত হোসেন উজ্জ্বল (২৫) নামে একজনকে আটক করেছে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে নটার লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মান্দারী বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়।

স্বীকারোক্তি অনুযায়ী প্রতারক চক্রের আটককৃত সদস্য শাহাদাত হোসেন উজ্জ্বল (২৫) নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী আমিশাপাড়া গ্রামের মৃত মো. শাহজাহানের ছেলে। লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সাহাপুর গ্রামের আলী কাউন্সিলরের পার্শ্ববর্তী বাড়ির রবিন (২৬) নামে আরো একজন প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য বলেও স্বীকারোক্তি পাওয়া যায়।

উজ্জ্বল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানায়, লক্ষ্মীপুর শহর, দালাল বাজার এবং মান্দারী বাজারের বিভিন্ন বিকাশ এজেন্টদের দোকানে গিয়ে গ্রাহকদের বিকাশ নম্বর সংগ্রহ করে তারা। এরপর ওইসব বিকাশ নম্বরে যোগাযোগ করে গ্রাহকদের বোকা বানিয়ে প্রতারণা করা হয়। তার ভাষ্যমতে, এ চক্রের সাথে গত দুই সপ্তাহ আগে জড়িত হয়েছিল সে।

মান্দারী বাজারের শাহজাহান টেলিকমের মো.ফারুক জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার দোকানে ৩০৫ টাকা রিচার্জ করতে গিয়ে কৌশলে বিকাশ গ্রাহকদের নম্বর সম্বলিত খাতাটির ছবি তুলে নেয় চক্রের এই সদস্য। এসময় তাকে আটক করে বণিক সমিতির অফিসে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে বিষয়টি স্বীকার করে। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

একইদিন বাজারের আরো কয়েকটি বিকাশ এজেন্ট পয়েন্টে ৩০৫ টাকা রিচার্জ ও বিকাশ নম্বর সম্বলিত খাতার ছবি তোলার ঘটনা ঘটেছে বলে খবর পাওয়া যায়।

রাজু পাটোয়ারি নামে একজন জানান, ঘটনারদিন বিকালে তার মামীর বিকাশ নম্বরে বাজারের ফয়সাল টেলিকম থেকে ২ হাজার টাকা ক্যাশ-ইন করা হয়। পরে ওই দোকানেরই পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে সব টাকা হাতিয়ে নেয় এ চক্রের সদস্যরা। সন্ধ্যায় ফয়সাল টেলিকম সহ মান্দারী বাজারের সকল বিকাশ এজেন্টদের বিষয়টি জানিয়েছিলেন তিনি।

এদিকে চন্দ্রগঞ্জ থানার সাব ইন্সপেক্টর (এসআই) কামরুল ইসলাম জানান, বিকাশে প্রতারণার অভিযোগে উজ্জ্বল নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

এবিএন/আবির আকাশ/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ