কালিগঞ্জে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীর বাচ্চা প্রসব: গর্ভবতী আরেকজন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ আগস্ট ২০২০, ০১:০৪

মানসিক ভারসাম্যহীন এক কিশোরী প্রসব করেছেন এক কন্যা সন্তান। একই এলাকার অপর এক অজ্ঞাত (১৪) মানসিক ভারসাম্যহীন গর্ভবতী কিশোরীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা সদরে। শুক্রবার রাতে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সন্তান প্রসব করে মাধবি (১৫) নামের ঐ কিশোরী।

হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, বাচ্চা ও মা সুস্থ আছে। অপর গর্ভবতী কিশোরীকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও সমাজসেবা অধিদফতর বাচ্চা ও তার মায়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছে। বর্তমানে বাচ্চাটির দেখাশুনা করছেন ঐ কিশোরীকে উদ্ধারকারী তৃতীয় লিঙ্গের ঝুমুর আক্তার।

স্থানীয়রা জানায়, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই দুই কিশোরী উপজেলা সদরের মাছ বাজার ও বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে থাকতেন। গর্ভবতী অবস্থায় ঘোরাঘুরি করতে দেখে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসীর ধারণা, কোনো ব্যক্তির ধর্ষণের ফলে এই কিশোরীরা গর্ভবতী হয়েছে। যে বা যারা এ রকম অমানবিক কাজ করেছে তাদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে তারা।

কালিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শেখ তৈয়েবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘স্থানীয়রা কিশোরীদের উদ্ধার করে হাসাপাতালে ভর্তি করে। এদের মধ্যে একজনের একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেছে। এখন সুস্থ আছে তারা। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সমাজসেবা কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে দুই কিশোরী ও বাচ্চার সুরক্ষা এবং চিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’

কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন জানান, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ