ধুনটে বালু উত্তোলনের কারনে ১ জনের জরিমানা, জব্দ ২৩

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০২০, ২০:০৯ | আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২০, ২০:২০

বগুড়ার ধুনট উপজেলার বিভিন্ন নদ-নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালীরা। তাই এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার বিকেলে (১০ আগষ্ট) অভিযান চালিয়ে ধুনট উপজেলার যমুনা নদীর শহড়াবাড়ী ঘাট এলাকা থেকে বালু উত্তোলনের ১৮টি নৌকা ও ৫টি লঞ্চ চালিত ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়াও গত তিনদিনে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে উপজেলার বাঙ্গালী ও ইছামতি নদীতে অভিযান চালিয়ে বালু উত্তোলনের ৯টি ড্রেজার মেশিন ধ্বংস করা হয়েছে। ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল্লাহ আল রনীর নেতৃত্বে পৃথক পৃথকভাবে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

জানাযায়, দীঘদিন ধরে স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালী বালু ব্যবসায়ীরা ধুনট উপজেলার যমুনা, বাঙ্গালী ও ইছামতি নদী সহ বিভিন্ন নদ-নদীতে ভাসমান ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে। এভাবে নদ-নদীর গভীর তলদেশ থেকে বোরিং করে বালু উত্তোলনের কারনে নদীর দুই পাড় ও ফসলীতে জমিতে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে তা বিক্রি করে বিপুল টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন ওই সকল প্রভাবশালীরা। 

একারনে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে নিমগাছী ইউনিয়নের নিমগাছী বাঙ্গালী নদী থেকে বালু উত্তোলনের কারনে সাবেক চেয়ারম্যান সুজাউদৌলা রিপনের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া জয়শিং এলাকায় নিমগাছী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমল হক, বেড়েরবাড়ী এলাকায় সাবেক ইউপি সদস্য নাবাব আলী, বথুয়াবাড়ী-বিলকাজুলী এলাকায় হাসানুল হক পটু ও ধামাচামা এলাকায় সাবানুর রহমানের ৯টি ড্রেজার মেশিন ধ্বংস এবং ভান্ডারবাড়ী যমুনা নদীর শহড়াবাড়ী ঘাট এলাকা থেকে বালু উত্তোলনের ১৮টি নৌকা ও ৫টি লঞ্চ ড্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়।  

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সঞ্জয় কুমার মহন্ত জানান, ধুনটে কোন অনুমোদিত বালু মহাল নেই। কিন্তু এরপরও অসাধু ব্যক্তিরা বিভিন্ন নদী-নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে। তাই পৃথক পৃথকভাবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এক জনের জরিমানা এবং বালু উত্তোলনের ৯টি ড্রেজার মেশিন ধ্বংস ও ২৩টি নৌকা ও লঞ্চ চালিত জ্রেজার মেশিন জব্দ করা হয়েছে। 

এবিএন/ ইমরান হোসেন ইমন/জসিম/অসীম রায় 
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ