বন্ধুকে সাথে নিয়ে ছুরি কিনে, সেই ছুরিতেই বন্ধুকে খুন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ আগস্ট ২০২০, ০০:১৭

চট্টগ্রাম খুলশী এলাকায় স্কুলপড়ুয়া ১৩ বছরের কিশোর রাসেল হত্যায় তারই বন্ধু হাসানুল কবির হাসানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

কিশোর হলেও পেশায় হাসান ইলেকট্রিক মিস্ত্রী হিসেবে কাজ করতেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় ১৬ বছর বয়সী এই কিশোর চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে খুনের বর্ণনা দিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কিছুদিন আগে একজনের সঙ্গে আরেকজনের কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার জের ধরে রাসেলকে খুনের পরিকল্পনা করে হাসান। তারই অংশ হিসেবে রাসেলকে সঙ্গে নিয়েই নগরীর নিউমার্কেট থেকে ছুরি কেনে ইলেকট্রিক মিস্ত্রি কিশোর হাসান। পরে স্কুলপড়ুয়া বন্ধুকে ডেকে পাহাড়ের চূড়ায় নিয়ে তাকে ছুরিকাঘাতে খুন করে।

গত সোমবার রাসেলের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের পর বন্ধু রাসেলের জানাজা ও দাফন-কাফনেও অংশ নেয় হাসান। পরে স্কুলছাত্র কিশোর খুনের রহস্য উদ্ঘাটন করে পুলিশ।

খুলশী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রণব চৌধুরী জানান, জবানবন্দিতে ইলেকট্রিক মিস্ত্রি হাসান বলেছে, রাসেল বন্ধুদের মধ্যে কর্তৃত্ব করত। বিষয়টি পছন্দ করত না সে। এ নিয়ে কিছুদিন আগে তার সঙ্গে রাসেলের কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে গত ৩১ জুলাই বিকেলে ছুরি কেনার পর, টাকা আনতে যাওয়ার কথা বলে রাসেলকে পাহাড়ে নিয়ে যায়। যাওয়ার পর মাটি থেকে একটি প্যাকেট তুলতে বললে রাসেল একটু কাত হয়। এ সময় রাসেলকে মাটিতে ফেলে তার পেটে ছুরিকাঘাত করে সে। রাসেলের মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর রক্তমাখা কাপড় নিয়ে বাসায় চলে আসে হাসান। কেউ যাতে সন্দেহ না করে, সে জন্য রাসেলের লাশ উদ্ধার হওয়ার পর কান্নাকাটিও করে সে।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতার করা কিশোরকে চট্টগ্রাম কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে গাজীপুরের কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ