আটপাড়ায় বিষ্ণুপুর গ্রামে হতদরিদ্র মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ 

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৬:৪৪

নেত্রকোণা প্রতিনিধি : নেত্রকোনার আটপাড়ায় বানিয়াজান সদর ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামে ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে ২৮টি হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন একই গ্রামের ২৮ জন বিভিন্ন শ্রেণির পেশাজীবি পরিবার। এ সময় প্রতিটি পরিবারের মাঝে নগদ ৮শত টাকা ও ১ কেজি চিনি, ১ প্যাকেট সেমাই, ১ লিটার তৈল তুলে দেয়া হয়।  

ঈদ সামগ্রী বিতরণ পেশাজীবি সংগঠনের মধ্যে রয়েছে বিচারপতি মো: মোস্তুফা জামান ইসলাম, রাজশাহী চিড়িয়াখানার সুপারভাইজার মো: আবুল কালাম, পোস্ট মাষ্টার আব্দুর রব মিস্টার, সিনিয়র সহকারী পরিচালক পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশন অরুন চন্দ্র চন্দ, আশা এনজিও ম্যানেজার আনোয়ার হোসেন খান, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার মো: মোশারফ হোসেন বাবলু, বাংলাদেশ পুলিশের এ.এস.আই মোস্তাক হোসেন 

কামাল, এ.এস.আই মো: রুবেল আহম্মেদ, কনেস্টবল মাহাবুবুল হক টিটু, রাসেল আহম্মেদ রনি, মনিরুল হক রায়হান, বিজিবি রিলিজিয়াস টিচার্স  মো: আব্দুল বারী, রাজশাজী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সালেকুজ্জামান খান সোহেল, এডভোকেট সাজ্জাদ হোসেন আলামিন, সুপ্রিম কোর্টের এডভোকেট মোস্তফা ইমাম হাসান লালন, জেল পুলিশ তাপস কুমার রনি,  বেসরকারী চাকুরীজীবি জহিরুল ইসলাম রাজীব, তৌহিদুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, রুবেল রানা, বিজিবি পিলখানা অফিস সহকারী মো: আল আমিন, পল্লী দারিদ্র্য ফাউন্ডেশন সেলফ্ অফিসার সোহেল রানা, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে কর্মরত অফিস 

সহকারী জাকিরুল ইসলাম রাজন, পলি ইনিস্টিটিউট ময়মনসিংহ মো: আমিনুল হক মিটু, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক আব্দুল আলিম, ডা: শাহরিয়ার হক বাবু, বিজিবি সৈনিক মোফাজ্জল হোসেন, ব্যবসায়ী মো: জাকিরুল ইসলাম। সার্বিক তত্তাবধানে ছিলেন রাজশাজী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সালেকুজ্জামান খান সোহেল। তাদের এই মহৎ উদ্যোগের বিষয়ে কথা বললে অধ্যাপক সালেকুজ্জামান খান সোহেল জানান আমাদের গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের জন্য প্রতি বছরেই ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হবে এবং এই পরিবার গুলোর যে কোন সমস্যায় সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। তাদের এই মহৎ উদ্যোগকে এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ সাধুবাদ জানিয়েছেন।  

 

এবিএন/মো: আসাদুজ্জামান খান সোহাগ/জসিম/অসীম রায় 


 

এই বিভাগের আরো সংবাদ