বান্দরবানে করোনায় আক্রান্ত নারীর মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২০, ১০:১২

বান্দরবানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। নিহত মহিলার নাম হোসনে আরা বেগম।

গতকাল শনিবার (৪ জুলাই) বিকালে ওই মহিলার মৃত্যু হয় বলে রাতে নিশ্চিত করেন বান্দরবানের সিভিল সার্জন।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, বান্দরবান পৌর এলাকার ৬নম্বর ওয়ার্ডের নিউগুলশান এলাকার বাসিন্দা হোসনে আরা বেগমের গত শুক্রবার করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। সে বান্দরবান হাসপাতালের করোনা ইউনিটের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

শনিবার সকালে তার অবস্থা সংকটাপন্ন হলে চিকিৎসকরা তাকে চট্টগ্রামে রেফার করেন। কিন্তু রোগীর পরিবার তাকে চট্টগ্রামে না নিয়ে যাওয়ায় বান্দরবান হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এদিকে, বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য মতে জেলায় এরইমধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। জেলার সাতটি উপজেলায় ৩ হাজার ২০২ জন থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষায় পাঠানো হলে ৪০৪ জনের করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র নিয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন ৯৬ জন বলে নিশ্চিত করেন বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডাঃ অংসুই প্রু মারমা।

অন্যদিকে, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়া ও বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা নিয়ে শনিবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন বান্দরবান পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বিশিষ্ট কাঠ ব্যবসায়ী সৈয়দ আহমদ তালুকদার।

গত (২২ জুন) বান্দরবান সদর হাসপাতালে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। তার স্বজনরা জানিয়েছেন মৃত্যুর পর তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না তিনি করোনায় সংক্রমিত হয়েচেন কিনা।
 
এ ব্যাপারে বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা জানিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে চট্টগ্রামে নেয়ার জন্য রেফার করা হয়েছিল। কিন্তু তারা চট্টগ্রামে না নিয়ে বান্দরবানই চিকিৎসায় আগ্রহ দেখান। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকালে হাসপাতালেই তিনি মারা যান।

তিনি আরো বলেন, শনিবারের রিপোর্টসহ বান্দরবান জেলায় ৩ হাজার ২০২টি নমুনা পরীক্ষার মধ্যে মোট ৪০৪ করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ৯৬ জন। হোম কোয়রেন্টিনে আছে এক হাজারের বেশী মানুষ।

এবিএন/মোহাম্মদ আব্দুর রহিম/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ