বোচাগঞ্জে গণশিক্ষা প্রকল্প রাজস্বখাতে নেয়ার দাবিতে স্বারকলিপি প্রদান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:১৭ | আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:১৯

ইসলামী ফাউন্ডেশন কর্তৃক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের বেতন ভাতা রাজস্বখাতে নেয়ার দাবিতে বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফকরুল হাসান বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

আজ ১৯ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল ১১টায় মসজিদ ভিত্তিক ইসলামী ফাউন্ডেশনের শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের শিক্ষকদের স্বারকলিপিতে উল্লেখ করেন, ইসলালী ফাউন্ডেশনের অধীনে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৫ বছর মেয়াদে ৬ষ্ঠ পর্যায়ে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমটি অতি সুনামের সাথে পরিচালিত হয়ে আসছে। 

ইসলামী ফাউন্ডেশনের সর্ববহৎ গুরুত্বপূর্ণ ও জননন্দিত এ প্রকল্পে প্রাক প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকাসহ মসজিদ কেন্দ্রের শিশু ও বয়স্ক শিক্ষার্থীদের কোরআন, বাংলা, গণিত, ইংরেজী, আরবি, নৈতিকতা ও মূল্যবোধসহ বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা পাঠদান করে আসছেন। 

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে এই প্রকল্পের প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তার ও কোর্স সম্পন্নকারী ছাত্র-ছাত্রীদের সহকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শতভাগ ভর্তি ও স্বাক্ষরতা হার বৃদ্ধি করে আসছে। বর্তমানে প্রকল্পটির আওতায় বয়স্ক ও শিশুসহ ৭৩ হাজার ৭’শ ৬৮টি কেন্দ্রে শিক্ষাপাঠদান করে আসছেন। যারা পাঠদান করাচ্ছেন তাদের বেতন ভাতার রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। 

মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত ইসলামী ফাউন্ডেশনের আওতায় এ প্রকল্পটি ‘‘মুজিব জন্ম শত বার্ষিকীতে” বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনার জন্য উপহার প্রকল্পটি রাজস্বখাতে হস্তান্তরের জন্য অনুরোধ করেছে বোচাগঞ্জ উপজেলা মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মো. জবায়দুর রহমান, হাফেজ আইয়ুব আলী, ওমর ফারুক, মোমিনুল ইসলাম, বেলাল হোসেন , তমিজউদ্দীন আহম্মেদ প্রমূখ। 

এবিএন/সাজ্জাদ/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ