সুনামগঞ্জে খনি প্রকল্প কলেজে হামলা, অস্ত্রসহ আটক ১

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:৫৩

সুনামগঞ্জের টেকেরঘাট চুনাপাথর খনি প্রকল্প মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদেরকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্রের ওপর চাইনিজ কুরালসহ দেশী অস্ত্র নিয়ে হামলার ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। 

এ ঘটনার সময় কলেজের ভিতর থেকে সিহাব সারোয়ার শিপু নামের এক লম্পটকে ১টি বিদেশী চাইনিজ কুরাল ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্রসহ আটক করে কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার পর থেকে লম্পট সিহাব সারোয়ার শিপুর শাস্থির দাবিতে বিক্ষোভ করছে শিক্ষার্থীরা। 

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে কলেজ পরিচালনা কমিটি, পুলিশ প্রশাসন ও এলাকার জনগণ নিয়ে সালিসের মাধ্যমে অস্ত্রধারী লম্পট শিপুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। 

এ ব্যাপারে ছাত্রছাত্রী ও এলাকাবাসী জানায়, জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামের হাবিব সারোয়ার আজাদ মিয়ার লম্পট ছেলে সিহাব সারোয়ার শিপু বাদাঘাট পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণীতে অধ্যায়নরত অবস্থায় ছাত্রীদের উত্যক্ত করতো। 

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে লম্পট শিপুকে নিয়ে সিলেটের বিজিবি স্কুলে ভর্তি করে তার বাবা। সেখানে গিয়ে শিপু পড়ালেখা বাদ দিয়ে জড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন মাদক সেবন ও ইয়াবা বাণিজ্যের সাথে। র‌্যাব অভিযান চালিয়ে পিস্তল ও ইয়াবাসহ লম্পট সিহাব সারোয়ার শিপুকে গ্রেফতারও করে। এ ঘটনায় লম্পট শিপুকে সিলেট বিজিবি স্কুল থেকে বহিস্কার করা হয়। 

এরপর আজাদ মিয়া তার লম্পট ছেলে সিহাব সারোয়ার শিপুকে টেকেরঘাট চুনাপাথর খনি প্রকল্প মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজের নিয়ে নবম শ্রেণীতে ভর্তি করে। ভারত সীমান্ত সংলগ্ন টেকেরঘাটে ভর্তি হওয়ার পর লম্পট সিহাব সারোয়ার শিপুর মদ, গাঁজা ও ইয়াবা সেবন করা আরো বেড়ে যায়। প্রতিদিনের মতো গতকাল বুধবার দুপুরে শিপু মাতাল হয়ে কলেজের ছাত্রীদের উত্যক্ত করার সময় এইচএসসি ২য় বর্ষে ছাত্র মিতুন প্রতিবাদ করে। 

এ ঘটনার জের ধরে প্রায় আধাঘন্টা পর লম্পট শিহাব সারোয়ার শিপু তার বাসা থেকে ১টি বিদেশী চাইনিজ কুরাল ও ১টি দেশী অস্ত্র নিয়ে কলেজ ক্যাম্পসের ভিতরেই কলেজ ছাত্র মিতুনের ওপর হামলা করে। এ সময় কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় প্রতিবাদী কলেজছাত্র মিতুন প্রাণে রক্ষা পায়। এবং সবাই মিলে লম্পট শিপুকে অস্ত্রসহ আটক করে গাছের সাথে বেঁধে রাখে। 

খবর পেয়ে পুলিশ ও এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে যায়। পরে কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্যদের নিয়ে বিকাল ৪টায় সালিশ বসে। কিন্তু সালিসে সুষ্ট সমাধান না হওয়ার কারণে কলেজ শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। বর্তমানে লম্পট শিহাব সারোয়ার শিপু পুলিশ হেফাজতে রয়েছে বলে জানাগেছে। 

এ ব্যাপারে টেকেরঘাট চুনাপাথর খনি প্রকল্প মাধ্যমিক স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক আজিজুল হক বলেন, আমি ও অন্যান্য ছাত্ররা মিলে কলেজছাত্র মিতুনকে প্রাণে রক্ষা করে চাইনিজ কুরাল ও অন্য ১টি অস্ত্রসহ লম্পট শিপুকে আটক করেছি। 

এ কলেজের অধ্যক্ষ খাইরুল আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আজ বিকেলে সালিসের মাধ্যমে লম্পট শিহাব সারোয়ার শিপুর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিএন/মোজাম্মেল আলম/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ