কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্র সবসময় খোলা রাখার দাবীতে মানববন্ধন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:২৬

সপ্তাহজুড়ে সারাবেলা, কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্র খোলা রাখার দাবীতে সারাদেশের ন্যায় আজ রবিবার সকালে ময়মনসিংহের পাটগুদাম বালিকা বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে সিরাক-বাংলাদেশ। বর্তমানে সারাদেশে জেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ৬০৩ টি কৈশোর বান্ধব সেবাকেন্দ্র চালু করেছে যা কিশোর-কিশোরী ও তরুণ-তরুনীদের প্রজনন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য প্রাপ্তিতে সহায়তা করছে।

কিন্তু, এ সেবা কেন্দ্রগুলোতে বর্তমান সময়সূচী সকাল ৯ টা থেকে বেলা ৩.৩০ পর্যন্ত হওয়ায় অধিকাংশ স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এ সময়ে সেবা গ্রহণ করতে পারে না। যদি এ সময়সীমা সপ্তাহে ৭ দিন এবং বিকেল ৫ টা পর্যন্ত হয় তবে শিক্ষার্থীরা সহজে এ সেবা গ্রহণ করতে পারে।এরই লক্ষ্যে  সাম্প্রতিককালে সিরাক-বাংলাদেশ এর উদ্যোগে কৈশোরবান্ধব সেবা কেন্দ্রের সময়সূচী বৃদ্ধি এবং যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য ও সেবার পরিসর বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়। এরই লক্ষ্যে ময়মনসিংহ, সিলেট, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের মানববন্ধন করা হয়।

উলে¬খ্য, প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তি প্রতিটি মানুষের মানবাধিকার - এ কথাটি সাধারন মানুষ, বিশেষ করে তরুণদের কাছে একটি লজ্জার বিষয় হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। এ বিষয়ে অজ্ঞতার কারণে কিশোরী বয়সে বাল্যবিয়ের শিকার হয়ে অকাল গর্ভধারণ, অনিরাপদ যৌন সম্পর্ক, প্রজনন স্বাস্থ্য জটিলতা, এবং সন্তান জন্মদান করতে গিয়ে প্রতিবছর হাজারো কিশোরী মৃত্যুর সাথে লড়ে, যার ফলশ্র“তিতে মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যুর হার বৃদ্ধি পায়।

ইউএনএইডস (২০১০) এর সূত্রানুসারে, বিশ্বজুড়ে প্রতি বছর ১৫-২৪ বছর বয়সী প্রায় ১০ লক্ষ তরুণ জনগোষ্ঠী সামঞ্জস্যহীনভাবে এইচআইভিতে আক্রান্ত হচ্ছে। এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর এর ২০১৩ সালের তথ্য অনুসারে ৫৩ শতাংশ কিশোরী-তরুণ আধুনিক জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিসমূহ ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছে না। এ সমস্যা নিরসনে কিশোর বয়স থেকেই প্রজনন স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তথ্য ও সেবা নিশ্চিত করতে হবে।
 

এবিএন/মঈন উদ্দিন রায়হান/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ