ভাঙ্গায় পিএসসি পরিক্ষায় নকল সরবরাহের দায়ে দপ্তরীর বিরুদ্ধে মামলা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৩২

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার মানিকদহ ইউনিয়নের মানিকদহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিক্ষার্থীদের মাঝে নকল সরবরাহের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত দপ্তরীকে আটক করে নিয়মিত মামলা করার আদেশ দেন উপজেলা নির্বাহী অফসার মুকতাদিরুল আহমেদ। ঐ কর্মচারীর নাম মো. মামুন মিয়া (২৫) সে অত্র স্কুলের দপ্তরীকাম ও নৈশপ্রহরী। সে ঐ গ্রামের আ. রব ফকিরের পুত্র। আজ শুক্রবার তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে এবং তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

মামলা সূত্রে জানাযায়, গতকাল বৃহস্পতিবার ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ে পরিক্ষা চলছিল ঐ স্কুলে। পরিক্ষা চালাকালিন সময় দপ্তরীকাম  মামুন মিয়া দায়িত্বরত অবস্থায় অসুদপায়ে নকল নিয়ে প্রবেশের সময় পুলিশ সদস্য হানিফ তাকে নকলসহ আটক করে। পরে দপ্তরীকে উপজেলা নিবার্হী অফিসারের কাছে সোপর্দ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুকতাদিরুল আহমেদ ঐ দপ্তরীর বিরুদ্ধে পাবলিক পরিক্ষা অপরাধ আইন ১৯৮০ সালের ৯এর(ক)/১৩ ধারায় নিয়মিত মামলা রুজু করার আদেশ দেন ভাঙ্গা থানা।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ভাঙ্গা সার্কেল) গাজী রবিউল ইসলাম বলেন, মামুনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানাযায় স্কুলের কেন্দ্র সচিব, হেড মিস্টেজ নাজমা বেগম ও বাবু ডাক্তার  এদের যোগসাজসে বিগত আরো দুদিন নকল সরবরাহ করেছেন। তিনি জানান একটি অসাদু চক্রের  মাধ্যমে ঐ এলাকার আরো চারটি স্কুলেও বিগত সবগুলো পরিক্ষায় নকল সরবাহ করেছে। তবে মামুনের বক্তব্যের কতটুকু সত্যতা পাওয়া যাবে সে বিষয়ে তদন্ত পূর্বক খতিয়ে দেখা হবে।এবং তদন্ত রিপোর্ট উর্ধতন কতৃপক্ষকে অবহিত করা হবে।

এ দিকে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মুন্সি রুহুল আসলাম বলেন, ঘটনাটি আমি পরে শুনেছি তবে স্কুলের কেন্দ্র সচিব অথবা কোন শিক্ষক জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


এবিএন/কে এম রুবেল/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ