লালমনিরহাটে রেস্টুরেন্ট ব্যবসার আড়ালে মাদক ও অস্ত্রের ব্যবসার অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৫৯

লালমনিরহাটের কালিগঞ্জ উপজেলায় রেস্টুরেন্ট ব্যবসার আড়ালে অস্ত্র ও মাদক ব্যবসার অভিযোগে খায়রুজ্জামান খয়ের ওরফে জামাল নামে একজনকে অস্ত্র ও ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার করেছে রংপুর র‌্যাব-১৩। জামাল ওই উপজেলার কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবী র‌্যাবের। গ্রেফতার হওয়া জামালের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ১১ টিরও বেশি মামলা রয়েছে বলে র‌্যাব সুত্রে জানা গেছে ।

আজ রবিবার বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১৩ ’র কোম্পানী কমান্ডার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোতাহার হোসেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার মধ্যরাতে লালমনিরহাটের কালিগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে খায়রুজ্জামান খয়ের ওরফে জামালকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি ৭.৬৫ বিদেশি পিস্তল, দুইটি ওয়ান শুটার গান, একটি ম্যাগাজিন, দুই রাউন্ড গুলি, ৭২ বোতল ফেনসিডিল, ২টি সিম ও একটি মেমোরি কার্ডসহ নগদ সাত হাজার টাকা উদ্ধার হয়।

গ্রেফতার খয়ের জামাল চন্দ্রপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড চন্দ্রপুর বাজার এলাকার মৃত তসলিম মিয়ার ছেলে। তার বিরুদ্ধে লালমনিরহাটের বিভিন্ন থানায় এগারোটির অধিক মামলা রয়েছে। সে বিভিন্ন এলাকায় কৌশল অবলম্বন করে অবৈধ মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করত।

র‌্যাবের দাবি, খায়ের জামালের পরিবারের বেশির ভাগ আত্মীয় স্বজন সীমান্তের ওপারে ভারতে বসবাস করার সুবাদে সে অত্যন্ত সু-কৌশলে মাদকের বিশাল সাম্রাজ্য গড়ে তোলে। চন্দ্রপুর বাজারে নিজস্ব হোটেল ও রেস্টুরেন্ট ব্যবসার আড়ালে মাদক ও অস্ত্র ব্যবসা করত। স্থানীয়দের কাছে সে একজন শীর্ষ মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত।

গ্রেফতার হওয়া এই আসামীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক পৃথক মামলা দায়েরের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও খায়ের জামালের সহযোগীদের ব্যাপারে র‌্যাবের অনুসন্ধান চলমান রয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

 
এবিএন/আসাদুজ্জামান সাজু/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ