সোনাগাজী বিএনপি সভাপতির বিরুদ্ধে ভূমি দখলের অভিযোগে মানববন্ধন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৭:৩৭

সোনাগাজী উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও চরছান্দিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে ভূমি জবরদখলের অভিযোগে মানববন্ধন করেছে সোনাগাজী ও কোম্পানীগঞ্জ এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকগণ। 

আজ ৯ অক্টোবর বুধবার সকালে সোনাগাজী ও কোম্পানীগঞ্জ সিমানা সংলগ্ন বাংলাবাজারে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকেরা বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিনের হাত থেকে তাদের ভূমি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং সড়ক পরিবহন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মানববন্ধনে ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকগণ জানায় সোনাগাজী উপজেলার চরদরবেশ ইউনয়নের সিমানার পাশে চর ছোটধলি মৌজার ১৮১৮ দাগের অন্দরে ২৯ একর ফসলি জমি গিয়াস উদ্দিনসহ তার সহযোগীরা জবর দখলের চেষ্টা করছে। ইতোমধ্যে কিছু জমি জোরপূর্বক দখলে নিয়েছে এবং আশপাশের জমিগুলো দখলের উদ্যেশে ভূমি মালিকদের হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। ফসলি জমির ধান কেটে নিতে দিবেনা বলেও হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।
বিএনপি নেতার ভূমি জবরদখলের বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকগণ নোয়াখালি পুলিশ সুপারেরর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়ে এবং পরবর্তিতে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাননি বলে জানান।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে কোম্পানীগঞ্জের মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম শাহিন চৌধুরী বলেন কাগজপত্রে যার মালিকানা টিকবে সেই ভূমির মালিক হবে, স্থানীয় গরিব কৃষকদের স্বার্থে বিষয়টির ফায়সালা হওয়া উচিত।

সোনাগাজীর চরছান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন মিলন তার পরিষদে অধ্যবধি কেউ এসব বিষয়ে অভিযোগ দেয়নি কিংবা লিখিত অবগত করেনি বলে জানিয়ে কোন মন্তব্য করেননি।

 অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি নেতা গিয়াস উদ্দিন মুঠোফোনে ফোনে প্রতিবেদককে বলেন এসব ভূমি আমি রেজিষ্ট্রিমূলে খরিদ করেছি, আমার কাছে কাগজপত্র আছে, কিছু খারাপ লোকের যোগসাজসে অসৎ উদ্যেশ্যে আমার সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য তারা মানববন্ধন করেছে।

এবিএন/আবুল হোসেন রিপন/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ