কালুরঘাটে সেতু নির্মাণের দাবিতে সিপিবির পদযাত্রা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৬

‘কর্ণফুলীতে অবিলম্বে রেলসহ সড়ক সেতু নির্মাণ করতে হবে। জনগণ আর তামাশা দেখতে চায় না। উন্নয়নের নামে জনগণের অর্থ নষ্ট না করে কালুরঘাটের অবিলম্বে সড়কসহ রেল সেতু নির্মাণ করে মানুষকে কষ্ট থেকে মুক্তি দিন। 
 
গতকাল শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল কালুরঘাট সেতুর পশ্চিম পাড়ে রেলসহ সড়ক সেতুর দাবিতে পদযাত্রা উপলক্ষে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) চট্টগ্রাম জেলা কমিটি আয়োজিত সমাবেশে বক্তারা এ কথা বলেছেন।

কমিউনিস্ট পার্টি নেতৃবৃন্দরা বলেন কালুরঘাটে সেতু নির্মাণ নিয়ে গত ১১ বছর ধরে চট্টগ্রাম-৮ আসনের সাংসদ একের পর এক কথা ফুলঝুঁড়ি ফুটিয়েছেন। এখন তিনি বলছেন ডিসেম্বর মাসে পদত্যাগ করবেন। এতো বছর কি করেছেন আপনি (সাংসদ)। ডিসেম্বরের দরকার কি, এখনই পদত্যাগ করেন। সংসদ আপনাদের, দেশ আপনাদের তবে কালুরঘাট সেতু নির্মাণ নিয়ে গড়িমসি কেন?’  

বক্তারা বলেন ‘প্রধানমন্ত্রী বলে দিয়েছেন কালুরঘাটে শুধুমাত্র রেল সেতু করা হবে, এই সিদ্ধান্ত জনগণ মেনে নেবে না। একটি মাত্র উপজেলার জন্য যদি সেতু করা সম্ভব না হয়, এতোদিন চীন-কোরিয়া সেতু করে দেবে বলে জনগণের প্রাণের দাবি নিয়ে উপহাস করেছেন কেন? তিলে তিলে না মেরে একেবারে মেরে ফেলুন।’ 

বক্তব্যে আরো বলেন সেতু যদি করতে না পারেন তবে কালুরঘাট সেতুর ইজারা দেওয়া বন্ধ করে দেন। বৃটিশ আমলের সেতু রেখে আপনারা উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছেন আর ভাবছেন মানুষ কিছুই বোঝে না। গরীবের টাকা আপনারা উন্নয়নের নামে লুটপাট করবেন, মন চাইলে কোটিপতির কোটি কোটি টাকার ঋণ মওকুফ করে দেবেন- তা হবে না।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সভাপতি আবদুল নবী সভাপতিত্বে ও বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক কানাই লাল দাশের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অশোক সাহা, কমরেড মৃণাল চৌধুরী, অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর, শ্রমিক নেতা পুলক দাশ, মসিউদ্দোল্লা, কালুরঘাট বোয়ালখালী সেতু বাস্তবায়ন পরিষদের সদস্য সচিব সাংবাদিক রমেন দাশগুপ্ত, অনুপম বড়–য়া পারু, অমৃত বড়–য়া, স্বপন দত্ত, মুক্তিযোদ্ধা অমল নাথ, জামাল, মোহাম্মদ আলী, আবদুল নাসের, ডা. অসীম চৌধুরী, সেহাব উদ্দিন সাইফু, সাংবাদিক আবুল ফজল বাবুল, আমীর হোসেন, মৃত্যুঞ্জয় দাশ, বোয়ালখালী উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি সৈয়দুল আলম প্রমূখ।

পশ্চিম পাড়ের সমাবেশ শেষে কালুরঘাট সেতুতে পদযাত্রা করে কালুরঘাট সেতুর পূর্ব পাড়ে জমায়েত হন নেতৃবৃন্দরা। এ সময় হাজারো শ্রেণী-পেশার মানুষ এ পদযাত্রায় অংশ নেন। 

দাবি আদায়ে শেষে আগামী অক্টোবর মাসে রেলওয়ে ভবন ঘেরাও, কালুরঘাট রেলওয়ে সেতু অবরোধসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন নেতৃবৃন্দ। 

এবিএন/রাজু দে/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ