গোবিন্দগঞ্জে রাজস শ্রী শ্রী কালি মন্দির কমিটির সংবাদ সম্মেলন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:৩৩

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের রাজস হিন্দুপাড়া শ্রী শ্রী কালি মন্দির পরিচালনা কমিটির এক সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় রাজস হিন্দু পাড়ায় শ্রী শ্রী কালি মন্দির প্রাঙ্গনে সংবাদ সম্মেলনে মুন্দির পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য শ্রীশম্ভুনাথ বর্মন লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন হিন্দু সমাজ মিলে কালি পূঁজা অর্চনা করে আসছি, এমতাবস্থায় রাজস দক্ষিণ পাড়া গ্রামের শ্রী ধরভাঙ্গীর পুত্র সুবল চন্দ্র বর্মন সমাজের নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে একগুয়েমীভাবে হিন্দু সমাজে মাঝে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির লক্ষ্যে একই স্থানে পৃথক একটি দুর্গা পূজা করার পায়েতারা করছে। এতে করে সামাজে বিরোধ তৈরী হয়েছে। ধর্মীয় অস্থিতি শীল সৃষ্টি করার জন্য অভিযুক্ত ব্যক্তি রাতের আঁধারে কালি মন্দিরে দুর্গা পূজার প্রতিমা স্থাপন করে এতে করে সমাজে চরম উত্তোজনার সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন হিন্দু সমাজের সার্বজনীন শ্রী শ্রী কালি মন্দিরটি মুক্ত করা অতি আবশ্যক। তা না হলে যে কোন সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ হতে পারে। হিন্দু সমাজে বৃহত্তর উৎসব দুর্গা পূজার অনুষ্ঠান বিঘিœত হতে পারে। উল্লেখ্য ৪৫ বছর যাবৎ অত্র মন্দির টিতে কালি পূজাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব হয়ে আসছে। শ্রী শ্রী সার্বজনিন কালি মন্দির হইতে দুর্গা পূজা প্রতিমাসমূহ স্থানান্তর পূর্বক হিন্দু সমাজে সামাজিক সম্প্রতি স্থাপনে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট আহবান জানান। 

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শ্রী বিরেন্দ্র নাথ বর্মন, বলায় চন্দ্র, ভোলা চন্দ্র বর্মন, মনোরঞ্জন বর্মন, যুগেন্দ্র চন্দ্র বর্মন, দীপক চন্দ্র মহন্ত, শিব চক্রবর্তী, অমল চন্দ্র ও বিমল চন্দ্র প্রমূখ। 

এবিএন/তাজুল ইসলাম প্রধান/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ