মদনে মসলায় ভেজাল মিশ্রণ করার অপরাধে গ্রেফতার ৪

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ জুলাই ২০১৯, ১৬:৩২

নেত্রকোনার মদনে হলুদ মরিচ, ধনিয়ায়, ধানের খুড়া মিশিয়ে ভেজাল মসলা তৈরি করার অপরাধে গতকাল শনিবার রাতে মদন বাজারে নূর আহমেদের মসলা মিলে ভেজাল জিনিসপত্রসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে মদন থানা পুলিশ।  দীর্ঘদিন ধরে উক্ত মিলে ভেজাল মসলায় তৈরির অভিযোগ রয়েছে এলাকাবাসীর।  

এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে এস আই শামছুল আলম বাদী হয়ে মিল মালিকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গতকাল শনিবার রাতে একটি মামলা দায়ের করেছেন।  

গ্রেফতারকৃতরা হলো মদন বাজারের মনোহরি ব্যবসায়ী মদন দক্ষিনপাড়া গ্রামের নিতিশচন্দ্র দাসের ছেলে ইন্দ্রজিৎ দাস, মিল চালক এমদাদপুর গ্রামের নিয়ামত আলীর ছেলে আমিনূর ওরফে আমির খান, একই গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে খোকন মিয়া, ফচিকা গ্রামের নেপাল দাসের ছেলে দেবল দাস। 

মামলা সূত্রে জানা যায় মদন বাজারের মনোহারী ব্যবসায়ী ইন্দ্রজিৎ ভাই ভাই মিল থেকে ভেজাল মসলা তৈরি করে মদন বাজারসহ জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে ভেজাল মসলা বিক্রি করে আসছিল। 

গতকাল শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের  একটি টিম মদন বাজারে ভাই ভাই মিল ঘরে প্রবেশ করে ধানের খুড়া মিশ্রিত হলুদ, মরিচ, ধনিয়ায় গুড়া পায়। 

তাৎক্ষণিক এসব দ্রব্য জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয় এবং  এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অপরাধে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়। ওই রাতে এসআই শামছুল আলম বাদী হয়ে মিল মালিকসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে। 

গ্রেফতারকৃতদেরকে আজ রবিবার দুপুরে নেত্রকোনা কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

ওসি তদন্ত স্বপন চন্দ্র সরকার জানান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মদন বাজারের নূর আহমেদের মসলা ভাঙ্গার মিল ঘরে অভিযান চালিয়ে ২৫২ কেজি ভেজার মসলা জব্দ করা হয়। 

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাদে ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং মিল মালিকসহ তাদের বিরুদ্ধে থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে। 

এবিএন/তোফাজ্জল হোসেন/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ