সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতি আরো অবনতি, এখন হুমকির মুখে বাঁধ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০১৯, ২২:৩৮

সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি ঘটেছে। বন্যা কবালিত এলাকার প্রায় ৯০ হাজার মানুষ এখন পানি বন্দি।  প্লাবিত হচ্ছে আরো নতুন নতুন অঞ্চল। বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের বাহুকা ও পুরাতন বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের গণরগাতীঁ নামকস্থানে এখন হুমকির আশংকা করা হচ্ছে। এতে ভাটি এলাকার লোকজনের মধ্যে আতংকের সৃষ্টি হয়েছে।

বর্তমানে যমুনা নদীর পানি বিপদ সীমার ৯৯ সেঃ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও হেড কোয়াটার রনজিৎ কুমার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, উজানের ঢলে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সিরাজগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে। কাজিপুরে ধসে যাওয়া রিং বাঁধের স্থান দিয়ে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করায় ভাটি এলাকার আরো বহু গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকায় বিশুদ্ধ পানি ও জ্বালানি সংকটের সৃষ্টি হয়েছে।

আরো ২/৩ দিন যমুনায় পানি বাড়তে পারে। জেলা বন্যা নিয়ন্ত্রণ কন্ট্রোল রুম দায়িত্বরত আতাউর রহমান জানান, যমুনা নদীর তীরবর্তী চৌহালী, কাজিপুর, শাহজাদপুর, বেলকুচি ও সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বন্যা কবলিত এলাকার ৬০ হাজার মানুষ এখন পানি বন্দি। তবে এসব এলাকার বহু পরিবার স্থানীয় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধসহ বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নিয়েছে ও নিচ্ছে।  এছাড়া চৌহালী উপজেলা ২টি বন্যা আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় ৩’শ মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।  বন্যা কবলিত এলাকায় চাল ডাল ও নগদ টাকাসহ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে।

এবিএন/এস,এম তফিজ উদ্দিন/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ