আ’লীগ নেতা কান্ত চক্রবর্তীর উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ১

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৯, ১৮:০৩

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার জমিদার ব্রীজ এলাকায় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ্ত চক্রবর্তী কান্তর উপর হামলার ঘটনায় নুরু মন্ডলের দেহরক্ষী একেএম সাজ্জাদ সোহাগ (৪০) ওরফে লাদেন সোহাগ নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত এ কে এম সাজ্জাদ সোহাগ গোয়ালন্দ পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ডের জুড়ান মোল্লার পাড়ার মৃত আবুল কালাম আজাদের ছেলে। ১০জুলাই বুধবার দিনগত মধ্যরাতে দৌলতদিয়া তেলের পাম্পের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।তার বিরুদ্ধে ইতোপূর্বে গোয়ালন্দ ও রাজবাড়ী সদর থানায় আরও ৪ টি মামলা আছে বলে জানা গেছে।

অভিযোগ রয়েছে, সোহাগ দীর্ঘদিন গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও এক নুরুল ইসলাম মন্ডলের দেহরক্ষী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা নং-১১ (জিআর-৪৮ তারিখ-৮/২/১৩ ইং ধারা-১৪৩/৩৪১/৩৫৩/৩৩২/৫০৬ দ:বি:), রাজবাড়ী থানার মামলা নং- ১২ (জিআর-৪৯, ধারা-১৪৩/৩৪১/৩৫৩/৩৩২ দ:বি:), গোয়ালন্দ থানার মামলা নং- ১ (ধারা-১৪৩/৩৩২/৩৫৩/৪২৭ তারিখ- ৩/১/২০০৫), গোয়ালন্দ থানার মামলা নং- ১০ (ধারা-৩৪১/৩২৩/৩২৫/৩০৭/৩৭৯/৫০৬ দ:বি: তারিখ-২২/০৮/২০১২)।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, গোয়ালন্দ উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে গত ৮ জুলাই একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো গ-১৭-৭৮২৭) যোগে পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের সম্মেলন শেষে সঙ্গীয় মোঃ আলাউদ্দিন সহ রাজবাড়ী ফেরার পথে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে গোয়ালন্দ-ফরিদপুর মহা সড়কের জমিদার ব্রীজ (ভিক্টর ফিডস লিমিটেড) এর সামনে পৌছলে একটি পিকআপ ভ্যান তাদের গতিরোধ করে। এসময় ৮/১০ টি মোটর সাইকেলযোগে ১৫-২০ জন অস্ত্রধারী তাদেরকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করে। সন্ত্রাসীরা তাদের হাতে থাকা হাতুরী দিয়ে গাড়ীর সামনের গ্লাসসহ দরজা জানালার কাঁচ ভেঙে হাতুরি দিয়ে তার সঙ্গে থাকা আলাউদ্দিনকে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় আঘাত করলে প্রদীপ্ত চক্রবর্তী বাম হাত দিয়া ঠেকানোর চেষ্টা করে এসময় তার হাড়ভাঙ্গাসহ গুরুতর আহত হন।

এজাহারে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, সন্ত্রাসীরা খুন করার উদ্দেশ্যে জখম করার সময় বলতে থাকে “নুরুমন্ডলের বিরোধিতা করিস” সাহস পাস কোথায়, আজ তোদেরকে খুন করে ফেলবো।এ ঘটনায় মঙ্গলবার গোয়ালন্দ থানায় মামলা (নং-১০ তারিখ-৯/৭/১৯ ধারা-১৪৩/৩২৩/৩২৫/৩০৭ দ:বি:) দায়ের হয়েছিল।

প্রদিপ্ত চক্রবর্তী কান্ত জানান, তিনি ও তার বন্ধু গোয়ালন্দ পৌর আওয়ামী লীগের ২নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন করে প্রাইভেটকার যোগে রাজবাড়ীতে আসার পথে জমিদার ব্রীজ এলাকায় পৌঁছাতেই একটি পিকআপ ভ্যান আমাদের গাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে আমাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

প্রদীপ্ত কান্ত চক্রবর্তী আরো বলেন, আমাদের উপরে এই সন্ত্রাসী হামলা নরু মন্ডলের নির্দেশেই চালানো হয়েছে বলে আমরা ধারণা করছি।

এবিএন/খন্দকার রবিউল ইসলাম/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ