বেড়ায় গলায় ফাঁস নিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ জুলাই ২০১৯, ১৬:৪৩

গলায় লাইলনের রশির ফাঁস লাগিয়ে ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। পাবনার বেড়া উপজেলার হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের চরপেঁচাকোলা গ্রামের শহীদ আলী ওরফে পাকু মোল্লার মেয়ে ভেড়াকোলা দারুল নুর ক্যাডেট মাদ্রাসা সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী সুমী খাতুন (১৪) গতকাল শুক্রবার গভীর রাতে তার নিজের কক্ষে ঘরের আড়ার সঙ্গে লাইলনের রশির ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

পারিবারিক ও থানা সুত্র মতে,সুমী খাতুন প্রতিদিনের মত রাতের খাবার খেয়ে মা-বাবার সাথে একই ঘরের তার আলাদা কক্ষে পড়াশুনা ও ঘুমাতে যায়। সকালে মেয়ে ঘুম থেকে না উঠা ও স্কুলে যেতে দেরী হওয়ার আশংঙ্কায় মা তাকে ডাকা ডাকি করতে থাকে। তার পরও তার ঘর থেকে বের না হওয়ায়,ঘরে গিয়ে দেখতে পায় মেয়ে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আছে।

 নিহতের মামা উক্ত ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান জানান,তার আপন ভাগ্নি সুমী কেন আত্মহত্যা করলো এ বিষয়ে কিছুই বুঝতে বা জানতে পারছেন না । তবে কিছু দিন থেকেই মেয়েটির মাথায় প্রচন্ড যন্ত্রনা হতো এবং এ জন্য তার চিকিৎসা চলছিল বলে ইউপি সদস্য জানান।

 দারুল নুর ক্যাডেট মাদ্রাসার সুপার আব্দুল হাকিম জানান, সুমী শান্ত,ভদ্র ও সদালাপী হিসেবে সবার কাছেই প্রিয় ছিল।তার এই অস্বাভাবিক মৃত্যুতে আমরা সবাই শোকাহত।

খবর পেয়ে বেড়া মডেল থানার এসআই রেজাউল লাশ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।  লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। বেড়া মডেল থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
 

এবিএন/নির্মল সরকার/জসিম/তোহা

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ